Home Life Style & Fashion 2021 এ বিশ্বের টপ 10 লাক্সারি ফ্যাশন ব্র্যান্ডস

2021 এ বিশ্বের টপ 10 লাক্সারি ফ্যাশন ব্র্যান্ডস

লাক্সারি ফ্যাশন ব্র্যান্ড বলতে মূলত আমরা বুঝি, দৈনন্দিন জীবনের জন্য প্রয়োজনীয় উচ্চ মানের ও মূল্যের প্রোডাক্ট যেখানে তৈরি হয়ে থাকে।উচ্চমানের উপকরণ নকশা এবং কারুশিল্প ব্যবহারের কারণে এই সব ব্র্যান্ডের পণ্যগুলোর মান ও মূল্য দুটোই বেশি হয়ে থাকে।

মহামারীর কারণে 2020 এ বিশ্বে ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হয়। আর একারণে কমার্শিয়াল সেক্টরগুলোর বেশিরভাগই অনলাইন ভিত্তিক হতে শুরু করেছে। লাক্সারিয়াস ফ্যাশন ব্র্যান্ডও এর ব্যতিক্রম নয়। শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ডগুলো এ পরিস্থিতিতে অনলাইনে নতুন বিপণন পদ্ধতিতে নিজেদেরকে কতটুকু মানিয়ে নিয়েছে অর্থাৎ গ্রাহকদের ডিজিটাল ব্যস্ততায় কতটুকু সহযোগিতা করেছে-তার উপর ভিত্তি করে ‘Lux’ একটি ডিজিটাল প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, বিশ্বসেরা শীর্ষস্থানীয় ১৫টি লাক্সারি ব্র্যান্ডের অনলাইনের জনপ্রিয়তা বিশ্লেষণ করে, যা নির্ভরযোগ্য ও কঠোর পদ্ধতির ফলাফল হিসেবে বিবেচিত। এই শীর্ষস্থানীয় ১৫টি ব্র্যান্ডই সারাবছর দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে। তবে এটি লক্ষ্য করা গুরুত্বপূর্ণ যে ‘Lux’ তাদের তালিকায় কেবলমাত্র যে ব্র্যান্ডস অন্তর্ভুক্ত করেছে তা হল লাক্সারি ফ্যাশন, বিউটি এবং “হার্ড লাক্সারি” বিভাগ যেমন: গহনা এবং ঘড়ি। এখানে শীর্ষ ১০ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো:

  1. Gucci (Category-Fashion): গুচি শুধুমাত্র পণ্য বিপণনের ক্ষেত্রে শীর্ষস্থানীয় নয়, সোশ্যাল মিডিয়াতেও শীর্ষস্থানীয়। এর অন্য প্রতিযোগীদের সাথে তুলনা করলে দেখা যায় যে, গুচি ভাল করেই জানে কিভাবে ডিজিটাল বিপণনে গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে হয়‌। তাই এর সোশ্যাল মিডিয়া গেমটির ক্রেডিট দিতেই হয়। পরিসংখ্যানে দেখা যায় যে, এটি প্রতি মাসে 11 মিলিয়ন বার আলোচনা করা হয়েছে-যা বিশ্বের অন্যান্য সমস্ত ব্র্যান্ডগুলোকেও হার মানায়।
  2. Louis Vuitton (Category-Fashion): জনপ্রিয় ডিজাইনার ‘ভার্জিল অ্যাবলো’ মেনসওয়্যারের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর লুই উইটনের জনপ্রিয়তা বেড়ে গেছে। সেইসাথে ব্র্যান্ডটি অনেক ধরণের ফিল্ডের সাথে নিজেদের যুক্ত করেছে। তাদের কোলাবোরেশনের কাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে তারা হাজার হাজার ক্রেতার সাথে সমন্বয় সাধন করেছে এবং তারা তারবিহীন এয়াবাডগুলির জন্য মাস্টার ও ডাইনামিকের সাথে কাজ করা শুরু করে দিয়েছে।
  3. Chanel (Category-Fashion): ব্র্যান্ডের প্রচারণার জন্য শ্যানেল একটি বিশেষ আকর্ষণীয় কৌশল অবলম্বন করতে দেখা গিয়েছে। এটি সর্বনিম্ন ই-কমার্স বেছে নেওয়া সত্ত্বেও সামগ্রিক ব্র্যান্ডের মান বৃদ্ধি পেয়েছে। এটি অন্যান্য বিভাগগুলোতে বিনিয়োগ করেছে, যেমন: বিখ্যাত সেলিব্রিটিদের দিয়ে আকর্ষক গল্পের মাধ্যমে ভিডিও প্রচার করেছে। এর মধ্যে ‘মারিয়ন কোটিলার্ড’ অভিনীত Chanel No.5 Perfume-এর সর্বশেষ প্রচার দেখা গেছে।
  4. Rolex (Category-Watch): ঘড়ির মডেল গুলোতে প্রতিনিয়ত নতুনত্ত্ব আনায় ও বিশেষ বিরল টুকরো দিয়ে চালিত হওয়ায় রোলেক্স দিন দিন তাদের উন্নতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে। এটি গল্ফ, মোটরস্পোটর্স, টেনিস এবং ইয়টিং-এ লাক্সারি পাইয়ের ক্রমবর্ধমান অংশ দেখিয়ে Rogar Federer, Lindsey Vonn এবং Phil Mickelson নামে কিছু হাত ঘড়ি বের করেছে।
  5. Dior (Category-Fashion): এই ব্র্যান্ডের সৃজনশীল পরিচালক ‘মারিয়া গ্রাজিয়া চিউরি’র “millennial-friendly” পদ্ধতির কারণে ডিওর ব্র্যান্ডটি টপ 5 এ আসে। তার বিখ্যাত নারীবাদী জুতো,ব্যাগ ও টি-শার্ট এবং সোশ্যাল মিডিয়া বান্ধব জেডিয়ার ব্র্যান্ডিংয়ের জন্য ইনস্টাগ্রামে ব্যাপক নজর কাড়ে। তাছাড়া এ ব্র্যান্ড সর্বজনীন খুচরার উপর নতুন ভাবে ফোকাস করায় এর অনলাইন বিকাশ ত্বরান্বিত হয়েছে।
  6. Balenciaga (Category-Fashion): এটি তালিকার দ্বিতীয় দ্রুত উঠে দাঁড়ানো লাক্সারি ফ্যাশন ব্র্যান্ড। বালেন্সিয়াগার বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ডিজাইনার ‘ডেমনা গোভাসালিয়া’র দ্বারা পুণর্নবীকরণের কারণে বিপণন বৃদ্ধি পায়। কারণ এর মাধ্যমে এই ব্র্যান্ড হাজারো সাধারণ জেজ শপ ক্রেতাদের কাছে আবেদন করে ব্র্যান্ডটিকে স্ট্রিটওয়্যার ও অ্যাথলিজার পদ্ধতির ধার দিতে। বিশেষত এটি এর স্পিড ট্রেনার এবং ট্রিপল-এস স্নিকার্স দ্বারা চালিত। এর ৬০% ক্রেতাই হলো তরুণ ক্রেতা।
  7. Armani (Category-Fashion): চামড়ার পণ্য থেকে শুরু করে রেডি-টু-ওয়্যার পোশাক, জুতা, ঘড়ি, গহনা, আনুষঙ্গিক আরো অনেক কিছুর কারণে সবসময় জনপ্রিয়তার তালিকার শীর্ষে রয়েছে আরমানি। তবে 2020 থেকে তারা তাদের ব্র্যান্ডকে এককীকরণ করার এবং ব্র্যান্ডের সংখ্যা ৭ থেকে কমিয়ে ৩ এ আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে A|X Armani Exchange- গ্রাহকরা স্পষ্টভাবে প্রশংসা করেছিলেন, এর সুন্দর প্রবাহের কারণে।
  8. Yves Saint Laurent (Category-Fashion): বৈচিত্র্যময় বিনিয়োগের কারণেই ইয়েভাস সেন্ট লরেন্ট দ্রুত সাফল্য অর্জন করে বিশ্ব রেকর্ড করেছে। প্রিমিয়ার স্নিকার্স,চামড়ার পণ্য,চশমা এবং আরও অনেক কিছুতে এর বিনিয়োগের প্রসার ঘটেছে। যা এটিকে সময়ের সাথে আরও একটি বিস্তৃত শ্রোতা ও নতুনভাবে ভক্তদের ক্যাপচার করতে সক্ষম হয়েছে।
  9. Tiffany (Category-Jewllery):নতুন বছরের শুরুতে টিফানি ও কোর এলভিএমএইচ এর সাথে চুক্তি হওয়া নামে একটি শিরোনাম প্রকাশিত হয় এবং এই চুক্তি যখন অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছিল তখন আরো কয়েকশ গুণ বেশি ভাইরাল হয় এই শিরোনামে। সেই সময় সোশ্যাল মিডিয়াতে আমেরিকান জুয়েলার্স এর পক্ষে ইতিবাচক প্রচারণার কারণে এটি তার Tiffany T1 প্রচার চালু করে এবং এর মাধ্যমে তরুণ উপভোক্তাদের সাথে সংযুক্ত হয়।
  1. Burberry (Category-Fashion): বারবেরি তাদের প্রচারের জন্য হাজারো বিখ্যাত মডেল ও অভিনেতা-অভিনেত্রীদের দিয়ে মনমুগ্ধকর অনলাইন ভিত্তিক ভিডিও তৈরি করেছে এবং ডিজিটাল খুচরা বিপণন এর মাধ্যমে ক্রমবর্ধমান মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে চলেছে। যদিও বারবেরির আকর্ষণীয় আইকনিক ট্রেঞ্চ কোটগুলো তার জনপ্রিয়তার পথে প্রতিনিয়ত এগিয়ে চলেছে। সেই সাথে তাদের নতুন ঘড়ি এবং সুগন্ধি লাইনগুলোও পাশাপাশি অবিচলিত নতুন-নতুন ভক্তও তৈরি করছে।

এই তালিকার বাকিগুলোও হলো:

  1. Hermés (Category-Fashion)
  2. Cartier (Category-Jewllery)
  3. Prada (Category-Fashion)
  4. Fendi (Category-Fashion)
  5. Lancôme (Category-Beauty)

Writer Information:
Tazim Sultana Nandita
Ahsanullah University of Science and Technology (AUST)
Department of Textile Engineering (Batch-40)
1st year 2nd semester

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

Related Post

Related from author

error: Content is protected !! Don\\\\\\\\\\\\\\\'t Try to Copy Paste.