আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নীলফামারীর উত্তরা ইপিজেড

0
432

মোঃ হাসিবুল হাসান সুজন:

#অবস্থান: উত্তরা ইপিজেড নীলফামারী জেলার সদর উপজেলার সংগলশী ইউনিয়নে অবস্থিত।

#আয়তন: মোট আয়তন ২১৩.৬৬ একর,প্রতিষ্ঠা জুলাই ১৯৯৯ এবং উদ্বোধন জুলাই ২০০১। #দূরত্ব উত্তরা ইপিজেড থেকে সৈয়দপুর বিমানবন্দর ১৬ কিলোমিটার, ঢাকা বিমানবন্দর ৪০৯ কিলোমিটার, মংলা সমুদ্রবন্দর ৫৬৮ কিলোমিটার এবং চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর ৬৮২ কিলোমিটার। #শিল্প প্লট এ ইপিজেডে ১৮০টি শিল্প প্লট থাকলেও কৃষিভিত্তিক ইপিজেড হওয়ায় এর বিকাশ দ্রুত হয়নি। তার মধ্যে ১৩৮টির বরাদ্দ সম্পন্ন হয়েছে। চালুকৃত প্লট ১২টি। ৩৩ টি প্লট উন্নয়নাধীন এবং ০৯ টি প্লট ফাঁকা আছে।

#উৎপাদনশীল পণ্য এবং প্রতিষ্ঠান উত্তরা ইপিজেড এ রয়েছে-

১) এভারগ্রীন প্রোডাক্টস ফ্যাক্টরী (বিডি) লিঃ (হংকং)

২)উইগ ও হেয়ার সামগ্রী,ওয়েসিস ট্রান্সফরমেশন লিঃ (ব্রিটেন)

৩)কফিন, বাশ-বেত সামগ্রী, ম্যাজেন (বিডি) ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ (চীন)

৪)সানগ্লাস, অপটিক্যাল ফ্রেম, ভেনচুরা লেদার ম্যানুফ্যাকচারিং (বিডি) লিঃ (চীন) ৫)লেদার ব্যাগ, মানিব্যাগ, ওয়ালেট, সেকশন সেভেন ইন্টারন্যাশনাল লিঃ(বাংলাদেশ

৬) প্যান্ট-শার্ট, কোয়েস্ট এ্যাক্সেসরিজ লিঃ (বাংলাদেশ) ৭)হ্যাংগার, পলিথিন, সুতার কোন, গার্মেন্টস এ্যাক্সেসরিজ, কেপি ইন্টারন্যাশনাল (বাংলাদশ)

৮) সু্য়েটার, এসএইন্টারন্যাশনাল (বাংলাদেশ)

৯)সু্য়েটার, ফারদিন এ্যাক্সেসরিজ (বাংলাদেশ)

১০)হ্যাংগার, পলিথিন, সুতার কোন, গার্মেন্টস এ্যাক্সেসরিজ, সনিক বাংলাদেশ লিঃ (চীন)

১১) খেলনা, ডং জিন ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ (হংকং)

১২)উইগ, উত্তরা সুয়েটার ম্যানুফ্যাকচারিং কোঃ লিঃ (চীন-হংকং)

১৩)সুয়েটার, কার্টিগান উৎপাদন করে।

#বিনিয়োগ ও রপ্তানি: ফেব্রুয়ারী ২০১৪ পর্যন্ত প্রস্তাবিত বিনিয়োগ ২৮৮.৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং প্রকৃত বিনিয়োগ ৬৫.৫৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, প্রকৃত রপ্তানী ৬৫.৫৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, রপ্তানী লক্ষ্যমাত্রা (২০১৩-১৪) ৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, প্রকৃত রপ্তানী ২০.০৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। #কর্মসংস্থান প্রস্তাবিত কর্মসংস্থান স্থানীয় ৫২,৭৫৭ জন, বিদেশী ১৯৬ জন, প্রকৃত কর্মসংস্থান স্থানীয় ১১,৩৪১ জন এবং বিদেশী ১৩৯ জন ।

#বিবিধ এলাকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে উত্তরা ইপিজেড গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করছে। দেশী-বিদেশী অনেক স্বনামধন্য বিনিয়োগকারী এখানে শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছেন। তাদের উৎপাদিত পণ্য বিদেশে রপ্তানী করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আয় হচ্ছে।

তথ্যসূত্র : bscic

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here