কাপ্রো ফেব্রিক (Cupro Fabric) বা কাপ্রামোনিয়াম রেয়ন

0
532

কাপ্রো ফেব্রিকস নামটা অনেকের কাছেই নতুন। নতুন হওয়াটাই স্বাভাবিক, কেননা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে আমরা হাজারো ফেব্রিকস ব্যবহার করি কয়টারেই বা নাম জানি। যাই হোক আজ জানবো কিউপ্রো ফেব্রিকস এর খুটিনাটি।

প্রথমে আসা যাক কিউপ্রো ফেব্রিকস কি?

কাপ্রো হ’ল একটি পুনর্জাতকৃত সেলুলোজ ফেব্রিক যা পুনর্ব্যবহৃত কটোন লিন্টার (লিন্টার হল এমন একটি মেশিন যেটার মাধ্যমে কটোন বীজ গিনিং এর পর সেটা থেকে ছোট ছোট ফাইবার সংগ্রহ করা হয়) এর মাধ্যমে তৈরি হয়। এটি উদ্ভিদের বীজের চারপাশে ফ্লাফি ফাইবার। এটি টেনসেল, রেয়ন, মডেল এবং লাইওসেলের কাপড়ের মতোই। Cuprammonium rayon, cupra, ammonia silk, Bemberg এসব নামেও পরিচিত।

ইতিহাসঃ

কাপ্রোকে কপারমোনিয়াম নামক কপার অক্সাইডের দ্রবণে দ্রবীভূত করে তৈরি করা হয়েছিল তাই এর নামকরণ করা হয়েছিল কাপ্রো।কাপ্রামোনিয়াম ফাইবার তৈরির প্রক্রিয়াটি ফ্রান্সের লুইস ডেস্পেপিসিস ১৮৯০ সালে আবিষ্কার করেছিলেন। এর দু’বছর পরে জার্মানির একটি সংস্থা লাইটব্লাবসের জন্য তন্তু তৈরি করতে প্রক্রিয়াটি ব্যবহার শুরু করে।১৮৯২ এর দশক থেকেই জাপানে উদ্ভূত হয়েছিল, এটি তার অনন্য বৈশিষ্ট্য এবং স্লো ফ্যাশনে যে পার্থক্য তৈরি করতে পারে তার জন্য এটি বিগত কয়েক বছরে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

বৈশিষ্ট্যঃ

কাপ্রো ফেব্রিক্স এর সাধারনত চারটি প্রধান বৈশিষ্ট্য লক্ষ করা য়ায়,

১) সূক্ষ্মতা
২) স্থিতিস্থাপকতা
৩) চকচকে
৪) অন্যান্য কাপড়ের সাথে সহজ মিশ্রণ

এছাড়াও ক্যারামমোনিয়াম রেয়ন বা কাপ্রো ফেব্রিক্স এমন একটি সিন্থেটিক কাপড় যা সিল্কের সাথে সাদৃশ্যযুক্ত।তবে কাপ্রো ফেব্রিক্স সত্যিকারের রেশমের মতো নয়।কাপ্রো ফ্যাব্রিক কটোনের মতো এবং এটি সুন্দর করে কাপড়কে ফুটিয়ে তোলে এবং আপনার ত্বকে সিল্কের মতো অনুভূত হয়। এর সিল্কি ভাব পোশাক এর ডিজাইন এবং পোশাকটিকে দুর্দান্ত করে তোলে।এটির আরো কিছু বৈশিষ্ট্য আছে যেমন এটি হাইপোলোর্জিক, অ্যান্টি-স্ট্যাটিক, অবিশ্বাস্যভাবে টেকসই এবং সবথেকে মজার ব্যাপার এটি তাপীয়-নিয়ন্ত্রণকারী হওয়ার কারণে দ্রুত শুকিয়ে যায়।

কিভাবে কাপ্রো ফেব্রিক্স তৈরি করা হয়?

কাপ্রামোনিয়াম রেয়ন বা কাপ্রো ফেব্রিক্স একটি উদ্ভিদজাতের সেলুলোজ যেমন সুতির পোশাক হিসাবে অ্যামোনিয়াম এবং তামা মিশ্রিত করে তৈরি করা হয়। এই দুটি উপাদান সেলুলোজের সাথে একত্রিত হয়ে একটি নতুন পদার্থ তৈরি করে এবং তারপরে এই মিশ্রণটি কস্টিক সোডায় ফেলে দেওয়া হয় এবং একটি স্পিনেরেটের মাধ্যমে বের করা হয়।উপাদান গুলো পরে hardening baths সিরিজ এ নিমজ্জিত করা হয় যা সেলুলোজ পুনর্গঠন করে এবং অ্যামোনিয়া, তামা এবং কস্টিক সোডা সরিয়ে দেয়।এভাবে এটি প্রস্তুত করা হয়।

কাপ্রো ফেব্রিক ব্যবহারঃ

কাপ্রামোনিয়াম রেয়ন বা কাপ্রো ফেব্রিক্স গুলিতে প্রায় এককভাবে ব্যবহৃত হয়। স্কার্ফ বা মাফলার এর মত গলায় বাধার পোশাকগুলিতে কখনও কখনও এই ফ্যাব্রিককে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। অনেক ক্ষেত্রে কাপ্রো প্রাকৃতিক বা সিন্থেটিক ফাইবারের সাথে মিশ্রিত হয় যা অন্যান্য পোশাক এর আনুষাঙ্গিককে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য দেয়।

অন্যান্য কাপড়ের সাথে মিশ্রিত কাপ্রো ফেব্রিকস এর ব্যবহৃত পোশাক গুলোর মধ্যে ব্লাউজ, ট্যাঙ্ক টপস, টি-শার্ট, স্পোর্টস ব্রা এবং অন্যান্য অন্তরঙ্গ পোশাক অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। নিজস্বভাবে, কাপ্রো ফর্ম-ফিটিং পোশাকগুলির মতো পাতলা, নিখুঁত পোশাকগুলিতে সর্বাধিক ব্যবহৃত হয়।

কাপ্রো ফ্যাব্রিক কোথায় উৎপাদিত হয়?

অন্যান্য সমস্ত সিন্থেটিক টেক্সটাইলের মতো বিশ্বজুড়ে কাপ্রামোনিয়াম রেইনের বা কাপ্রো ফেব্রিক্স এর উৎপাদক হলো চীন। কাপ্রামোনিয়াম রেইন উৎপাদনের সাথে সম্পর্কিত পরিবেশগত উদ্বেগ সত্ত্বেও, চীন প্রতি বছর পশ্চিমা দেশগুলিতে প্রচুর পরিমাণে “কাপ্রো” রফতানি করে চলছে।

কাপ্রো ফ্যাব্রিক্স এর উৎপাদন ব্যয়ঃ

কাপ্রো ফেব্রিক্স বা কাপরামোনিয়াম রেয়ন স্বল্প ব্যয়ের জন্য স্পষ্টভাবে উৎপাদিত হয়। প্রচুর পরিমাণে বর্জ্য সেলুলোজ খুব সামান্য অর্থের জন্য অর্জন করা যেতে পারে এবং কয়েকটি সেলুলোজকে কয়েকটি বেসিক উপাদানগুলির সাথে মিশ্রিত করে স্ক্র্যাচ থেকে সম্পূর্ণ নতুন সেলুলোজ ফাইবার তৈরি করা সম্ভব।এতে স্বল্প খরচে দল বেশি মুনাফা অর্জন করা সম্ভব।
কাপ্রো ফ ্যাব্রিক পরিবেশে কীভাবে প্রভাব ফেলবে?

পুনর্ব্যবহারযোগ্য হওয়া সত্ত্বেও, কাপ্রামোনিয়াম রেয়ন পরিবেশের উপর স্থির নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। পরিবেশগত সঙ্কটের সমাধান অনুসন্ধান করার পরিবর্তে কাপ্রো এবং অনুরূপ কাপড়ের নির্মাতারা কীভাবে বর্জ্য পণ্যগুলি দিয়ে অর্থ উপার্জন করবেন তা নির্ধারণ করার চেষ্টা করছেন।যেহেতু অ্যামোনিয়া এবং তামাগুলির সাথে সেলুলোজ মিশ্রিত করা এবং এটি পরিধানযোগ্য ফেব্রিকে পরিণত করার সুরক্ষার দিকে খুব কম গুরুত্ব দেওয়া হয়, তাই কাপ্রোমোনিয়াম রেয়ন উৎপাদন প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হয়ে গেলে অনেক বিষাক্ত বর্জ্য পদার্থ উৎপন্ন হয় যা পরিবেশের উপর বিরুপ প্রভাব ফেলে।

তবে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করলে এবং বিষাক্ত বর্জ্য পদার্থগুলো পরিশোধনের ব্যবস্থা করলে এই ক্ষতি এড়িয়ে চলা যাবে।যেহেতু এই ফেব্রিকস উৎপাদন খরচ কম।তাই এটি স্বল্প খরচে উৎপাদন করে বেশি মুনাফা অর্জন করা সম্ভব।

Source: Wikipedia, YouTube, sewport

Writer info:

Mahmud Al-Hasan
Team member (DWMTEC)
Textile Engineers Society
Dr. M A Wazed Miah Textile Engineering College

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here