Thursday, June 13, 2024
More
    HomeLeatherডিসার্টো(Desserto) : ক্যাকটাস হতে তৈরি লেদার

    ডিসার্টো(Desserto) : ক্যাকটাস হতে তৈরি লেদার

    বাজারে এমন অনেক ফ্যাশন ব্র্যান্ড আছে যারা প্রানী মুক্ত ভেগান লেদার (vegan leather) তৈরী করে থাকে।তবে এই ব্র্যান্ড গুলো বেশীর ভাগ লেদার এর কাঙ্খিত রূপ অর্জন এর জন্য প্লাস্টিক থেকে প্রাপ্ত PVC(polyvinyl chloride) এবং PU(polyurethane) ব্যবহার করে থাকে। পিভিসি (পলিভিনাইল ক্লোরাইড)  এবং পিইউ (পলিউরেথেন) উভয়েই বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ, ফেলেটস(phthalates) এবং বিসফিনল(bisphenol)  এর ট্রেস ধারণ করে। এই পদার্থ গুলো বায়োডিগ্রেডেবল  নয় তাই পরিবেশ এর জন্য ক্ষতিকারক। 

    প্রানীজাত লেদার এর তুলনায় ভেগান লেদার পরিবেশ বান্ধব হলেও এই সমস্যা গুলো থেকেই যাচ্ছে। তবে সুখবর হচ্ছে এই সমস্যাটির একটা নির্ভরযোগ্য সমাধান বের করেছেন অ্যাড্রিয়ান লোপেজ ভেলার্ড (Adrián López Velarde) এবং মার্টে খাজারেজ (Marte Cázarez) নামক দুইজন মেক্সিকান উদ্যোক্তা। তারা নোপাল ক্যাকটাস এর পাতা থেকে উন্নত মানের লেদার উদ্ভাবন করতে সক্ষম হয়েছেন যা সাসটেইনেবল এবং বায়োডিগ্রেডেবল যোগ্য তাই অন্যান্য ভেগান লেদার এর তুলনায় বেশি পরিবেশ বান্ধব ও নির্ভরযোগ্য। তারা তাদের উদ্ভাবনকৃত এই নতুন ক্যাকটাস ভেগান লেদার এর নাম দেন ডিসার্টো(Desserto)।

    ২০১৯  সালে মিলানের একটি সুপরিচিত আন্তর্জাতিক লেদার ফেয়ার লাইনাপেল(Lineapelle) -এ ক্যাকটাস লেদার ডেসার্টো এর আত্মপ্রকাশ  ঘটে।ডেসার্টো এর টেকসই প্রমাণপত্রাদি, প্রাণীজাত লেদারের মতো জমিন এবং বৈশিষ্ট্যের কারণে এটি প্রচুর উত্সাহের যোগান দিয়েছিলো। 


    এখন জেনে নেই কিভাবে অ্যাড্রিয়ান লোপেজ ভেলার্ড (Adrián López Velarde) এবং মার্টে খাজারেজ (Marte Cázarez)  ডিসার্টো এর সম্পর্কে ধারণা পেলেন। 

    ভেলার্ড(Velarde) এবং মার্টে(Marte)  প্লাস্টিক দূষণ সম্পর্কে জানার পর পরিকল্পনা করেন তারা নোপাল ক্যাকটাস থেকে এমন এক ধরনের লেদার তৈরী করবেন যা প্লাস্টিক দূষণ এড়াতে সক্ষম হবে। তারা নোপাল ক্যাকটাস কে বাছাই করেছিলেন কারণ পুরো মেক্সিকোতে এটি প্রচুর পরিমাণে বৃদ্ধি পায় এবং এটি বৃদ্ধি পেতে বৃষ্টির পানি ব্যতীত বাড়তি পানির প্রয়োজন হয় না। প্রায় দুই বছরের গবেষণা ও বিকাশের পরে অবশেষে তারা কিভাবে নোপাল ক্যাকটাস এর পাতা গুলোকে নিখুঁত ক্যাকটাস ভিত্তিক লেদারে পরিনত করা যায় তা আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়েছিলেন। 

    চলুন এবার সংক্ষেপে জেনে নেয়া যাক কিভাবে নোপাল ক্যাকটাসকে লেদার এ পরিনত করা হয়। 

    ক্যাকটাস এর খসখসে, ঘন ত্বকের জন্য পরিচিত যা প্রানীর চামড়া অনুকরণের জন্য নিখুঁত জমিন তৈরি করে। ক্যাকটাসের লেদার তৈরির জন্য ক্যাকটাস এর মূলটি অক্ষত রেখে কেবল পরিপক্ক পাতা কাটা হয়। এর ফলে ৬ থেকে ৮ মাসের মধ্যে আবার ফসল কাটার জন্য পাতাগুলি পুনরায় বেড়ে উঠে। উল্লেখ করার মতো বিষয় হল উদ্ভিদটির বাড়তে খুব কম পানির প্রয়োজন হয়। কৃত্রিম সেচের কোনও প্রয়োজন ছাড়াই বৃষ্টির পানি যথেষ্ট।  শুকনো উপাদানের ১ কেজি উত্পাদন করতে, কেবল ২০০ লিটার পানি ব্যবহার করা হয়।অপরপক্ষে ভুট্টার মতো উদ্ভিদের একই পরিমাণে উত্পাদন করতে ১০০০ লিটারেরও বেশি পানির প্রয়োজন হয়।ক্যাকটাসের পাতা পরিপক্ক হওয়ার পর জৈবিক ভাবে ক্যাকটাস উদ্ভিদ থেকে পৃথক করা হয়, পরিষ্কার করা হয়, ছাঁটাই করা হয় এবং ম্যাশ করা হয় এরপর প্রক্রিয়াজাত করনের তিন দিন  আগে থেকে রোদে শুকানোর জন্য রাখা হয়। সঠিক আর্দ্রতায় পৌঁছানোর পর পদার্থটি অ-বিষাক্ত  রাসায়নিকের সাথে মিশ্রিত হয় এবং একটি ব্যাকিংয়ের সাথে এট্যাচড করা হয়।একটি বিশেষ প্রক্রিয়ায় এটিকে লেদার এ রূপান্তরিত করা হয় এবং বিশেষ পদ্ধতিতে প্রাকৃতিকভাবে এটিকে রং করা হয়। 

    ডিসার্টো কয়েকটি পুরুত্বের হয়ে থাকে। এর পুরুত্ব নির্ভর করে এটি যে কাজে ব্যবহার করা হবে তার উপর। যেমন এক্সেসাসরিস, জুতা, ব্যাগ ইত্যাদির ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন পুরুত্ব হয়ে থাকে। 
    ডিসার্টো মূলত ৫ টি রঙের হয়ে থাকে সবুজ, লাল, কালো, ধূসর এবং সাদা। বর্তমানে নীল ও সবুজ রঙের বিভিন্ন শেডের তৈরি করা হয়। 

    এখন প্রশ্ন হচ্ছে ডেসার্টো কত দিন স্থায়ী হতে পারে?   ভেলার্ড(Velarde) এবং মার্টে(Marte) এর অনুসারে ডেসার্টো ব্যবহারের তীব্রতার উপর নির্ভর করে ১০ বছর পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।স্বাভাবিকভাবেই, এটি প্রাণীজাত চামড়ার চেয়ে কম দীর্ঘস্থায়ী হবে কিন্তু এটি অন্য লেদার এর তুলনায় অধিক পরিবেশ বান্ধব এবং এটি একটি খুব টেকসই ভেগান লেদার হিসেবে  বিবেচিত।

    পরিশেষে এটাই বলতে চাই আমাদের পরিবেশকে দূষণ এর হাত থেকে রক্ষার জন্য যতটা সম্ভব পরিবেশ বান্ধব পণ্য ব্যবহারে আমাদের সচেষ্ট হতে হবে। এ লক্ষ্যেই কবি সুকান্তের কন্ঠে কন্ঠ মিলিয়ে বলতে পারি-

    ‘এসেছে নতুন শিশু,তাকে ছেড়ে দিতে হবে স্থান; 
    জীর্ণ পৃথিবীতে ব্যর্থ,মৃত আর ধ্বংসস্তূপ পিঠে চলে যেতে হবে আমাদের।
    চলে যাব তবু আজ যতক্ষণ দেহে আছে প্রাণ প্রাণপণে       
    পৃথিবীর সরাব জঞ্জাল, 
    এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য  করে যাব আমি 
    নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।’

    Information collected from :

    Google 
    goblackwood.co.uk
    mymodernmet.com
    popularmechanics.comdesserto
    greenmatters.com

    Writer information :
    Mariam Bibi Goon Nahar
    Department of Clothing and Textile, 1st Year
    Bangladesh Home Economics College 

    RELATED ARTICLES

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -

    Most Popular

    Recent Comments