পরিবেশ বান্ধব অরগানিক কটন

0
547

অর্গানিক কটন বলতে সাধারণত বোঝায় সেই তুলাকে যেটি গাছকে বিভিন্ন রাসায়নিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পরির্বতন করে এবং উদ্ভিদ এ কোনো প্রকার জৈবিক রাসায়নিক সার বা কীটনাশক ব্যবহার না করে উৎপাদন করা হয়। ভারত, তুরস্ক, চীন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সহ কিছু অংশে এই তুলা উৎপাদন করা হয়।

তুলা বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় ফসল। তবে এর উৎপাদনের মাধ্যমে পরিবেশে ব্যাপক প্রভাব ফেলে। অর্গানিক কটন একটি ফসলের আবর্তে উৎপাদিত হয়, যা মাটিকে স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে।

এই তুলা উৎপাদন করতে জেনেটিক্যালি সংশোধিত বীজ ব্যবহার করা হয় এবং বিষাক্ত কীটনাশক ও সিথেটিক সার ছাড়াই তুলা উৎপাদন হয়।

কটনের প্রকারভেদঃ
•Upland Cotton (Hirsutum)
•Extra Long Staple Cotton (Barbadense)
•Tree Cotton (Arboreum)
•Levant Cotton (Herbaceum)

Upland Cotton (Hirsutum):
এই ধরণের তুলাই বর্তমানে সবোচ্চ ব্যাবহার করা হয় এবং বিশ্বব্যাপী উৎপাদিত তুলার ৯০% তুলাই এর অর্ন্তবুক্ত। এর ফাইবারগুলোর স্বল্প র্দৈঘ্যর হয়ে থাকে।

Extra Long Staple Cotton (Barbadense):
আপল্যান্ডের তুলোর বিপরীত, এই ধরণের তুলা উৎপাদনের 8% মাত্র। এ তুলার মান বেশ চমৎকার। সাধারণত পোশাক এবং বিছানাপত্রের জন্য এটি ব্যবহৃত হয়। এটি অনেক দেশে পিমা নামেও পরিচিত।

Tree Cotton (Arboreum):এই তুলাটি ভারত এবং পাকিস্তানের স্থানীয়। গৌজি, শ্বাসকষ্টযোগ্য এবং প্রায়শই রান্না ও চিকিৎসা সরবরাহ উভয় ক্ষেত্রেই ব্যবহৃত হয়।

Levant Cotton (Herbaceum): এই তুলা সাধারণত সুতোর জন্য ব্যবহৃত হয়। লেভান্ট তুলা দক্ষিণ আফ্রিকা এবং আরব উপদ্বীপের একটি সাংস্কৃতিক প্রধান বিষয়। এর বীজ প্রায়শই উচ্চমানের ফিডের জন্য ব্যবহৃত হয় এবং এটি ছোট গুল্মের মতো বাড়ে।

অর্গানিক কটন উৎপাদনঃ

অর্গানিক কটন বিশ্বে তুলা উৎপাদনের মাত্র 1-2% হয়। বর্তমানে অনেক দেশে এই তুলার উৎপাদন হয়। বৃহত্তম উৎপাদক দেশ (2018 এর হিসাবে) হলো ভারত (51%), চীন (19%), তুরস্ক (7%) এবং কিরগিজস্তান (7%)। আফ্রিকার অরগানিক কটন ৪ টি দেশে অরগানিক কটন উৎপাদন করা হয়। প্রথম উৎপাদক(1990) ছিলেন মিশরের সেকেম সংগঠন; এর সাথে জড়িত কৃষকরা মিশরীয় সরকারকে ৪০০,০০০ হেক্টর জমিতে প্রচলিত তুলার উৎপাদন বন্ধ করে অরগানিক তুলার চাস করতে করতে রাজি করেছিলেন।ফলে মিশরে সিন্থেটিক কীটনাশকের ব্যবহারে ৯০% কমে যায় এবং ফলন 30% বৃদ্ধি পায়।
অরগানিক কটন ব্যাপক হারে বৃদ্বি করায় জন্য বিভিন্ন শিল্প উদ্যোগ, এবং নাইকি,, ওয়ালমার্ট, এবং সিএন্ডএ সহ বিভিন্ন সংস্থাগুলো এখন তাদের সরবরাহকৃত তুলাকে তাদের কাচামাল হিসাবে ব্যাবহার করা শুরু করেছে।

কীভাবে অর্গানিক কটন সাধারণ কটন থেকে আলাদা হয়?

অর্গানিক কটন 100% প্রাকৃতিক বীজ ব্যবহার করে উৎপাদিত হয় তাই কীটনাশক বা অন্যান্য ক্ষতিকারক রাসায়নিকের ব্যবহার একেবারেই নেই। অন্যদিকে সাধারণ তুলার ক্ষেত্রে একই জমিতে বারবার তুলা উৎপাদনের ফলে মাটির গুণগতমান নষ্ট হয়।

ফাইবারের গুনগত মানঃ

তুলা তন্তুগুলির বিশুদ্ধতা যেভাবে তুলাটি বাছাই করা হয়েছে তা থেকেই বিচার করা হয়। তুলা হয় হ্যান্ডপিকড বা মেশিন বাছাই করা হয়।অর্গানিক কটন প্রতিটি ফাইবারের বিশুদ্ধতা রক্ষা করে এবং প্রক্রিয়াটিতে কোনও ফাইবার ক্ষতিগ্রস্থ না হয় তা নিশ্চিত করে পুরোপুরি হ্যান্ডপিক করা হয়।

উৎপাদনঃ

প্রথাগত তুলো প্রক্রিয়াজাতকরণে প্রচুর পরিমাণে রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়। সুতি পণ্য ধোয়ার পরেও, এই ক্ষতিকারক রাসায়নিকগুলির অবশিষ্টাংশ থেকে যায় এবং ত্বকে জ্বালা হতে পারে।
কিন্তু অর্গানিক কটন ক্ষেএে এমন কোনো সম্ভাবনা নেই।

পানির ব্যবহার
অর্গানিক কটন 98% পর্যন্ত পানি দূষণ হ্রাস করে। সাধারণ তুলার মতো বিপজ্জনক কোন প্রভাব নেই। উৎপাদনের পরে মাটি বা জল পরিষ্কার করার প্রয়োজন নেই।ফলে পানির অপচয় হয় না।

গ্রিন হাউস গ্যাস নির্গমন
অর্গানিক কটন অন্যান্য তুলা উৎপাদনের তুলনায় 47% কম গ্রিনহাউস গ্যাস তৈরি করে। ফলস্বরূপ মাটিও CO2শোষণ করে। এটি পূর্বের চেয়ে বায়ুমণ্ডলকে আরও পরিষ্কার করে ফেলে।

তথ্যসূত্র: Wikipedia, startupfashion.com , www.continentalclothing.com

Writer information
Zannatul Ferdous Putul
Government College Of Applied Human Science , DU
Department of clothing and textile
Campus Team Member of TES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here