মশারি সম্পর্কে বিস্তারিত

0
1884


নিজ ঘরে মশা থেকে বাঁচার সবচাইতে সস্তা, দীর্ঘস্থায়ী, কার্যকর এবং নিরাপদ ‍উপায়টির নাম মশারি। 
কয়েল বা ওষুধে মশা নাও মরতে পারে, তবে চারদিক গুঁজে নিয়ে এবং ভেতরে মশা নেই সেটা নিশ্চিত করে মশারির ভেতর ঢুকে বসে থাকলে মশা যে কামড়াতে পারবে না সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। আর কয়েল, অ্যারোসল ফুরিয়ে গেলেও, মশারি কখনই ফুরিয়ে যায় না।
আমাদের দেশের বাজারের প্রেক্ষাপটে মশারি দুই প্রকার, ‘বাংলা মশারি’ আর ‘ম্যাজিক মশারি’। দুই ধরনের মশারি তৈরি হয় ‘পলিয়েস্টার’ কাপড়ের জাল থেকে। তফাৎটা হল সেলাইতে।


বাংলা মশারিতে উপরের অংশে ও নিচের দিকে আলাদা কাপড় জোড়া দেওয়া হয় যা জালের মতো নয়। আর ম্যাজিক মশারি পুরোটাই জাল-জাতীয় কাপড়ে তৈরি হয়।
যে কারণে ম্যাজিক মশারির ভেতরে ফ্যানের বাতাস প্রবেশ করতে পারে বেশি।
ম্যাজিক মশারির কাপড় মজবুত বেশি তবে ওজন কম। সেলাইয়ের ধরন ভিন্ন হওয়াতে এতে জোড় পড়ে কম, তাই দীর্ঘদিন টেকসই হয়।”


“বাংলা মশারির তুলনায় ম্যাজিক মশারি পরিষ্কার করাতেও কষ্ট কম। এছাড়াও দেখতে সুন্দর, ধরতে নরম ইত্যাদি ব্যাপারও আছে। সবমিলিয়ে ম্যাজিক মশারির চাহিদা বেশি।”
 “‘সিঙ্গেল’, ‘সেমি-ডাবল’ ও ‘ডাবল’ এই তিন মাপে তৈরি হয় দুই ধরনের মশারি। ১৫০ টাকা থেকে শুরু করে ১,২০০ টাকা পর্যন্ত দাম হয় এগুলোর। মাপ ছাড়াও কাপড়ের মান, ডিজাইন, ব্র্যান্ড ইত্যাদি বিষয়ের উপর নির্ভর করে দাম। শিশুদের জন্য তৈরি ‘স্ট্যান্ডিং’ মশারির দাম ২০০ থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে। 
মশারির ব্র্যান্ডের মধ্যে বোনাফাইড, পেপকন, আনোয়ার টেক্সটাইল, মেহেদি টেক্সটাইল, এঞ্জেলস ইত্যাদি নির্ভরযোগ্য নাম।


বাসা বাড়ির বারান্দা, জানালা, ভেন্টিলেইটর ইত্যাদি স্থানে লাগানোর জন্য গজ হিসেবে এই কাপড় ব্যবহার করা হয়, কাপড় ভেদে দাম ৩৫ থেকে ৫০ টাকা প্রতি গজ।
দেয়ালে মশারির কাপড় এঁটে দেওয়ার জন্য ব্যবহার হয় ‘ভেলক্রো’ বা চড়চড়ি। ‘ভেলক্রো’ মজবুতভাবে বসানোর জন্য মশারির কাপড় ও ‘ভেলক্রো’র মাঝখানে রাখা হয় মোটা কাপড়ের লেইস। লেইস মশারির দোকানেই পাওয়া যাবে বান্ডেল হিসেবে, দাম ৪০ থেকে ৫০ টাকা।


Writer: Md. Robiul Alom

WPE, 3rd batch, SKTEC

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here