Home Career Sell me this pen !!

Sell me this pen !!

আচ্ছা আমরা তো মোটামুটি সবাই লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও এর বিখ্যাত ছবি “Wolf Of Wall Street” দেখেছি। আর এই ছবির অন্যতম ভাইরাল হওয়া একটি সিন ছিল যে, ” Sell me this pen !” অর্থাৎ আমাকে কলমটি বিক্রি করে দেখান।

আমরা যারা রানিং স্টুডেন্ট রয়েছি বা যারা চাকরি করছি, মোটামুটি আমাদের সবারই একটা স্বপ্ন থাকে যে, একটা ভালো মানের কোম্পানিতে জব করবো। তো ব্যাপারটা হচ্ছে এইরকম যে, আপনি ভাইভা দিতে গেলেন, সব প্রশ্নের উত্তর খুবই ভালো করে দিতে সক্ষম হলেন। এখন লাস্টে দেখা গেল যে, কোম্পানির সিইও স্যার অথবা জিএম স্যার অথবা HR ডিপার্টমেন্টের প্রধান আপনার হাতে একটি কলম ধরিয়ে দিয়ে বলল যে, ” Sell me this pen !” অর্থাৎ আমাকে কলমটি বিক্রি করে দেখান।

এখন আসল কথা হচ্ছে যে, আপনি কিভাবে কলমটি উপস্থিত সবাইর সামনে বিক্রি করে দেখাবেন। মনে রাখবেন যে, আপনার একটা প্রশ্নের অনেক সুন্দর সাজানো গোছানো উত্তরই পারে, আপনাকে ভাইভা বোর্ডে দশ জনের একজন করে দিতে আর আপনার স্বপ্নের চাকরিটি আপনাকে পাইয়ে দিতে !! তো আপনি একজন চাকরি প্রার্থী হিসেবে কিভাবে এই প্রশ্নের জবাব দিবেন আজকে এই টপিক নিয়েই আমরা আলোচনা করবো। তো চলুন শুরু করা যাক !! 😊😊

ওকে, ফাইন। যখন কোন একটি পণ্য আমরা বিক্রয় করতে যাই, তখন বিক্রয়ের হাজারো রকমের পদ্ধতি আমরা অনুসরণ করতে পারি। তো আজকে, আমরা বিক্রয়ের কয়েকটি ইফেক্টিভ সিক্রেট শিখতে পারবো, যে গুলো আমরা আমাদের ভাইভাতে উত্তরস্বরূপ বলতে পারি, আর ভাইভা বোর্ডে আপনার বিপরীতে যেই থাকুক না কেন; তাকে ইম্প্রেস করতে পারি।

সত্যিকার অর্থেই, কোন একটি পণ্য বিক্রি করতে গেলে অথবা কোন একটি চুক্তি সম্পন্ন করতে গেলে এটি খুবই একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যে, কিভাবে আমি একটি পণ্যকে আমার সম্ভাব্য ক্রেতার নিকট প্রদর্শন করছি ! বলে রাখা ভাল যে, পণ্য হিসেবে আমি এইখানে ভাইভা বোর্ডের কলমটিকে নির্দেশ করছি।

একটু ঠাণ্ডা মাথায় আমরা চিন্তা করলে সবাই বুঝতে পারবো যে, কোনো একজন মানুষ যখন একটি প্রোডাক্ট কিনতে যায়, তখন তিনি কোনো লজিকের কারনে প্রোডাক্টটি কিনেন না। তিনি প্রোডাক্টটি কিনে থাকেন, ওনার নিজের ইমোশান বা আবেগের দ্বারা তাড়িত হয়ে। কথাটি অনেক হাস্যকর মনে হলেও, এইটাই বাস্তব কথা।

আমরা নিজেরাই যদি একটু কল্পনা করি যে; আমরা কেন একটা নির্দিষ্ট প্রোডাক্ট কিনতে যাই, তাহলে আমাদের জন্য বুঝতে সুবিধা হবে যে কেন আমরা একটি প্রোডাক্টকে নিজের করে নিতে চাচ্ছি ? প্রোডাক্টটি হতে পারে, নতুন একটি স্যুট যা আপনাকে অনেক মানায় !! আপনি স্যুট টি কোনো অনুষ্ঠানে পরে গেলেন, আর সবাই হ্যাঁ করে আপনার দিকে তাকিয়ে থাকলো। আপনি সবাইর আকর্ষণের কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হলেন।

এইখানে, আমরা আরেকটু যদি গভীরভাবে চিন্তা করি, তাহলে আমরা বুঝতে পারবো যে, আমরা আমাদের নিজেদের আবেগকে কিনে নিচ্ছি। হতে পারে, আপনি আপনার স্যুট টি কিনেছেন, লোভের কারনে। হতে পারে, আপনি আপনার স্যুট টি কিনেছেন, আপনার নিজের উদারতার কারনে। কেননা, আপনি যদি এই স্যুট টি কিনে থাকেন, আপনার টাকার কিছু একটা অংশ দরিদ্র মানুষদের সাহায্যের জন্য ব্যয় করা হবে। হতে পারে, আপনি আপনার স্যুট টি কিনেছেন, আপনার নিজের লজ্জার কারনে। বিষয়টা এই রকম যে, আমি যদি এই স্যুট টি না কিনি তাহলে আমাকে দেখতে খারাপ লাগবে। হতে পারে, আপনি আপনার স্যুট টি কিনেছেন, আপনার নিজের ভয়ের কারনে। আপনি যদি এই স্যুট টি না কিনেন, তাহলে আপনি সমাজ থেকে একঘরে হয়ে যাবেন !!

আর এইখানে আমরা যত গুলো কারন দেখতে পারছি, সব গুলোই কিন্তু আমাদের ইমোশান বা আবেগের সাথে সম্পর্কিত। তাই আমরা নিঃসন্দেহে বলতেই পারি যে, আমরা কোনো একটি পণ্য কিনার সময় আবেগের দ্বারা প্রভাবিত হয়েই কিনি। আপনি যখন কোনো ড্রেস কিনার জন্য একটি ব্র্যান্ডের ফ্যাশন হাউজে যাবেন, খেয়াল করলে দেখবেন যে, ওখানে কর্মরত সকল কর্মচারীরাই আপনার আবেগকে মূল্য দিচ্ছে। আপনাকে দেখা মাত্রই, আপনার সাথে ভাব জমাচ্ছে। আর বলছে যে, স্যার আপনাকে আমি কিভাবে হেল্প করতে পারি !! আপনাকে দামি একটি পোশাক পরিয়ে দিয়ে বলছে যে, স্যার আপনাকে সালমান খানের মত লাগছে। আর এইখানেই আপনি ওদের কাছে মার খেয়ে যান আর আবেগের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ঐ পোশাকটি কিনে ফেলেন !

আসলে ব্যাপারটা এই রকম যে, বাস্তবিক ভাবে, শারীরিক ভাবে কোনো ভাবেই আপনি সালমান খান না। কিন্তু, আপানার আবেগ আপনাকে ফিলিংস দিচ্ছে যে, আপনি যদি এই পোশাকটি পরিধান করেন, তাহলে আপনাকে সালমান খান এর মত দেখাবে। তাই ভাইবা বোর্ডে সরাসরিভাবে কলমটি আপনার বিপরীতে যারা থাকবেন, তাদেরকে কলমটি কিনার জন্য পুশ করবেন না। আগে নিজের মাথা খাটিয়ে চিন্তা করুন যে, কিভাবে আপনি তাঁদেরকে ইমোশোনাল ব্ল্যাক মেইল দিবেন আর তাঁদেরকে আপনার কলমটি কিনতে বাধ্য করবেন !!

এইখানে আরো একটি কথা আমাদের মাথায় রাখা দরকার যে, মানুষজন কোনো একটি পণ্য কিনে, তাদের কোনো সমস্যা সমাধানের জন্য। বিষয়টি আমরা আরেকটু যদি বুঝিয়ে বলি তাহলে, কোনো একটি দেওয়ালে ছিদ্র করার জন্য ড্রিল মেশিনের প্রয়োজন। কলম দিয়ে কিন্তু কোনো দেওয়ালে আপনি ছিদ্র করতে পারবেন না। আবার আপনি খাতায় লিখার জন্য কলম ব্যবহার করবেন। ড্রিল মেশিন দিয়ে আপনি খাতায় লিখতে পারবেন না। তাই আপনার কলমটি বিক্রি করার আগে, আপনার টার্গেট কাস্টোমারের ডিমান্ড বুঝতে চেষ্টা করুন। তাদের কি কি সমস্যা তা আগে বুঝার ট্রাই করুন।

আর সত্যি কথা তো এটাই যে, আমরা যতটা না কোনো পণ্য কিনি তার থেকেও বেশি কিনি স্টোরি বা বিক্রেতাদের চটকদার কথা। এইখানে ব্যাপারটা হচ্ছে অনেকটাই এই রকম যে, ৫ টাকা দামের একটি সাধারন কলম আর বিখ্যাত Mont Blanc ব্র্যান্ডের, জন এফ কেনেডি লিমিটেড এডিশনের, হ্যান্ড মেড একটি ৫ লক্ষ টাকা দামের কলমের কি তফাৎ থাকে ?

বলে রাখা ভাল যে, উভয় কলমই কিন্তু একজন ক্রেতাকে সমান পারফর্মেন্স দিবে !!!

আচ্ছা এখানে যদি লক্ষ্য করি , তাহলে বুঝতে পারব যে, ৫ টাকা দামের কলমটি নিতান্তই একটি সাধারন কলম। কিন্তু যখন ৫ লক্ষ টাকা দামের, বিখ্যাত Mont Blanc ব্র্যান্ডের জন এফ কেনেডি লিমিটেড এডিশনের, হ্যান্ড মেড কলমের কথা আসে, এখানে খেয়াল করলে দেখা যাবে যে, কিছু শব্দের ব্যবহার হয়েছে। যেমনঃ জন এফ কেনেডি, সীমিত সঙ্গস্করন, হাতে তৈরি পণ্য।

এটি কোন একটি সাধারন ঘটনা নয় যেখানে কিনা একটি পন্যের সাথে কয়েকটি শব্দ জুড়ে দেওয়া হল বরঞ্চ এই শব্দ গুলোর মাধ্যমেই আমি একটি পণ্যের সম্ভাব্যতা ও স্বকীয়তা কয়েকশো গুন বাড়িয়ে দিতে পারি যা কিনা মানুষদেরকে ঐ কলমটি ক্রয় করার জন্য আকৃষ্ট করবে।

আর এইভাবেই উপরোক্ত, টেকনিক্যাল স্ট্রেটেজি গুলোকে কাজে লাগিয়ে ভাইভা বোর্ডে, সিইও স্যার অথবা জিএম স্যার অথবা HR ডিপার্টমেন্টের প্রধান যিনি কিনা আপনার হাতে একটি কলম ধরিয়ে দিয়ে বলেছেন যে, “Sell me this pen ” ওনাকে কাঁপিয়ে দিন।

Writer information:

Badhon Saha
Primeasia University
Department: Textile Engineering
Batch: 181.

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

বাংলাদেশে টেক্সটাইল শিল্পের অগ্রযাত্রা

"মেঘ দেখে তোরা করিস নে ভয়, আড়ালে তার সূর্য হাসে"। কবির এই কবিতার মেঘ...

কার্ডিং মেশিন- হার্ট অফ স্পিনিং নিয়ে বিস্তারিত

কার্ডিং মেশিন টেক্সটাইল স্পিনিং মিলের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মেশিন। সুতা তৈরির সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে সবচেয়ে কার্যকর ভূমিকা...

মেঘেদের রাজ্যে টেক্সটাইলের রাজত্ব

পাখির মত উড়তে কার না ইচ্ছে করে।মেঘের সাথে সখ্যতা গড়তে চায় মানুষ সবসময়।সভ্যতার সূচনালগ্ন থেকেই মানুষ উড়ার চেষ্টা...

গল্পটা মাছ ধরার জালের

"ইলিশ মাছের তিরিশ কাঁটা, বোয়াল মাছের দাড়ি,ইয়াহিয়া খান ভিক্ষা করে, শেখ মুজিবের বাড়ি।" তখনকার...

Related Post

‘সফলভাবে সম্পূর্ণ হলো টেক্সটাইল ইন্জিনিয়ারস সোসাইটির দ্বিতীয় অনলাইন কোর্স’

নিজস্ব প্রতিবেদক, টিইএস। বর্তমানে সারাবিশ্বেই চলছে করোনার মহামারী সময়। ঘরে বসেই কাটাতে হচ্ছে দিন। তাই...

Buying house and Merchandizing

Buying house : বায়িং হাউজ এমন একটি প্লাটফর্ম যা Buyer ও supplier এর মাঝে সেতু স্বরুপ কাজ করে...

গার্মেন্টস মার্চেন্ডাইজিং সম্পর্কে বিস্তারিত

মার্চেন্ডাইজিং একটি ইংরেজী শব্দ তবেআমরা মার্চেন্ডাইজিং মানে বলতে পারি, যেকোনো পন্য কারো থেকে ক্রয় করে সেটা অন্যের কাছে ...

বাংলাদেশ ও টেক্সটাইল শিল্পের ইতিহাস

সারা বিশ্বে বাংলাদেশের নাম যে কয়টি কারণে পরিচিতি লাভ করেছে তার মধ্যে পোশাক শিল্প অন্যতম। পোশাক রপ্তানির মাধ্যমে...

Related from author

ব্লো রুমের Waste Calculation যেভাবে বের করবেন

আমাদের আলোচ্য বিষয় Waste Calculation, অর্থাৎ সেই সব নিষ্ফল বস্তু বা অপদ্রব্য হিসাব করা যা আমাদের মূল কাজে বাঁধা প্রদাণ করে। সাধারণত...

Trimmings এবং Accessories গল্প

আমরা যে পোশাক পরিধান করি তার মূল এবং প্রধান অংশটি হচ্ছে ফ্যাব্রিক। একটি সম্পূর্ণ পোশাক তৈরি করতে ট্রিমিংসস এবং আনুষাঙ্গিক কিছু সহায়ক...

পাকিস্তানে নির্মাণাধীন কিছু E.P.Z. এর কথা

আমরা সবাই কিন্তু ছোটবেলায় পাকিস্তানের খাইবার গিরিপথের নাম শুনেছি। তো পাকিস্তানের এই খাইবার প্রদেশে বিশাল বড় বড় অনেকগুলো S.E.Z. বা স্পেশাল ইকোনমিক...

নির্দিষ্ট ফ্যাব্রিক জিএসএমের জন্য যেভাবে ইয়ার্ন কাউন্ট নির্বাচন করবেন

টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এ সবচেয়ে পরিচিত শব্দ গুলির মধ্যে দুটি হচ্ছে 'ইয়ার্ন কাউন্ট' এবং 'ফ্যাব্রিক জিএসএম'।ইয়ার্ন কাউন্ট: কাউন্ট হলো ইয়ার্নের একক ভরের দৈর্ঘ্য...
error: Content is protected !! Don\\\\\\\'t Try to Copy Paste.