Tuesday, July 16, 2024
More

    Smart Textile

    🍁আদিম মানুষের বর্বরতা ঘুচিয়ে আধুনিক সভ্য মানুষ হওয়ার পেছনে পোশাক যে একটি গুরুত্বপূর্ণ অবলম্বন সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। সভ্যতার অগ্রগতির সাথে সাথে এই পোশাক শিল্পেও এসেছে অনেক উন্নতি। প্রকৃতি দিয়েছে পোশাক তৈরীর নানা উপাদান। প্রকৃতির এই বহুরুপীতার সাথে মিল রেখে বর্তমান প্রযুক্তি নির্ভর বিশ্বে টেক্সটাইল কোনো অবদান রাখবেনা! তা কি হয়? প্রযুক্তির এক অনন্য নিদর্শন Smart Textile. আজ লিখেছি Smart Textile নিয়ে

    🍂সৌন্দর্য বৃদ্ধির অন্যতম উপায় হলো পোশাক। বাজারে রয়েছে নানা বর্ণের নানা ধরনের পোশাক। যা মানুষ তার শরীরকে আবৃত করে, সৌন্দর্য প্রকাশ করে এবং পরিবেশের ক্ষতিকারক উপাদান থেকে নিজেকে নিরাপদ রাখে। কিন্তু প্রযুক্তির এই বিশ্বে পোশাক এখন শুধুই পরিধানের বিষয় নয়। এখানেও যুক্ত হয়েছে প্রযুক্তি। প্রযুক্তির কল্যাণে পোশাক এখন দিচ্ছে নানা সুবিধা। এক সময়ের কথা বলার মোবাইল ফোন আজ যেমন শুধুই কথা বলার যন্ত্র নয়। এখানে যুক্ত হয়েছে নানা অ্যাপস ও ফিচার। এসব ফোনের এখন নাম হয়েছে স্মার্ট ফোন। তেমনই নানান সব ফিচার, সুযোগ, সুবিধা যুক্ত হওয়ায় পোশাককেও বলা হচ্ছে স্মার্ট টেক্সটাইল বা ফেব্রিক। কেউ কেউ এটাকে বলছেন ওয়ারেবল টেকনোলজি বা পরিধানযোগ্য প্রযুক্তি।

    স্মার্ট টেক্সটাইল পোশাককে উন্নত করেছে প্রযুক্তির হাত ধরে, যা মানুষের কাছে অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য। স্মার্ট পোশাক জীবনকে গতিময় করার জন্য কিছু করতে পারে যা গতানুগতিক ঐতিহ্যগত পোশাকের দ্বারা কোনভাবেই সম্ভব নয়। স্মার্ট পোশাক ধাপে কাজ করে। নান্দনিকতা সৃষ্টি এবং পোশাকের পারফরমেন্স বৃদ্ধি।

    🍂Smart textile বর্তমান সময়ে সবচেয়ে আলোচিত বিষয়। Smart Textile কি ? কিভাবে ব্যবহার করা হয়? এদের কাজটাই বা কি? এ নিয়ে অনেকে অনেক উপায়ে অনেক কিছু বলেছেন। আসলে স্মার্ট টেক্সটাইল কে কয়েকটি শব্দে সংসজ্ঞায়িত করা যায়না। Smart Textile হচ্ছে এমন একটি Textile যা পরিবেশের পরিবর্তন বুঝতে পারে। অথবা এভাবেও বলা যায় যে, যে Textile সমূহ পরিবেশের পরিবর্তন বুঝতে পারে এবং সে অনুযায়ী প্রতিক্রিয়া দেয় তাদেরকে Smart Textile বলা হয়।

    🔸টেক্সটাইল পণ্যগুলোর নিম্নলিখিত ধর্মগুলোর পরিবর্তন করে সেটি স্মার্ট টেক্সটাইল এর অন্তর্ভুক্ত করা সম্ভব।
    ১) থার্মাল
    ২) মেকানিক্যাল
    ৩) কেমিক্যাল
    ৪) ইলেক্ট্রিকেল
    ৫) ম্যাগনেটিক
    ৬) অপটিক্যাল

    🍁বিভিন্ন পরিবেশে স্মার্ট টেক্সটাইল এর প্রতিক্রিয়া সমূহ দৃশ্যমান বা অদৃশ্যমান ও হতে পারে। রঙ,আকার,জ্যামিতিক গঠন বা আয়তনের এর পরিবর্তন গুলো হলো দৃশ্যমান পরিবর্তন। আর অদৃশ্য পরিবর্তন গুলো হলো আণবিক শক্তির স্থানাতর, বৈদ্যুতিক বা চৌম্বক ক্ষেত্রের শক্তির পরিবর্তন যা খালি চোখে দেখা যায় না।
    Smart Textile কে তিন ভাবে ভাগ করা যায়ঃ
    1. Passive smart sensors Textile.
    2. Active smart sensors and actuators Textile.
    3. Very smart Textile

    ✅Passive smart sensors Textile: এগুলো সাধারণত sensors হিসেবে ব্যবহার করা হয় যা বিভিন্ন সংকেত কে electric sign এ রুপান্তর করে।
    যেমনঃ
    1. Optical fiber
    2. Conductive material
    3. Thermo couple etc.

    ✅Active smart textile: এগুলা পরিবেশের অবস্থা বুঝতে পারে এবং সে অনুযায়ী প্রতিক্রিয়া দেখায়। যেমনঃ
    1. chroimotic materials
    2. Shape change materials
    3. Phase change materials
    4. Electric textile etc.

    ✅Very smart Textile: এখানে এমন প্রযুক্তি থাকে যা বাহ্যিক সমস্যা গুলো বুঝতে পারে এবং ঐ বিরূপ পরিবেশে টিকে থাকার জন্য প্রয়োজনীয় পরিবর্তন সাধণ করে নিতে পারে। যেমনঃ
    1. Space suit
    2. Medical Apperal.

    🌐source: Muslin,Wikipedia,Into. to Textiles

    🖋Writer:
    Sajjadul Islam Rakib
    Dept. of Textile Engineering
    NITER 10th Batch (1st year)

    RELATED ARTICLES

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -

    Most Popular

    Recent Comments