Home Fiber দুধ থেকে পোশাক

দুধ থেকে পোশাক

দুধ থেকে ছানা, সন্দেশ, চিজ এসব তৈরি হয়। কিন্তু কাপড়?🤔🤔🤔

হ্যাঁ, ল্যাক্টোপ্রোটিন বা দুধের প্রোটিন থেকে ফাইবার, ফাইবার থেকে সুতা, সুতা থেকে কাপড়, কাপড় থেকে পোশাক এ সবই সম্ভব। নানা রঙের কাপড় কেটে ফ্যাশনেবল জামাকাপড় তৈরি করেন কিউ-মিল্ক কোম্পানির সিইও আঙ্কে ডোমাস্কে, যিনি একাধারে ডিজাইনার ও মাইক্রোবায়োলজিস্ট। আঙ্কে বলেন, দুধ থেকে তৈরি এ কাপড়ে দুধের গন্ধ পাবেন না। ওদিকে খুবই মসৃণ এ কাপড়। আঙ্কে ডোমাস্কে মানুষের ব্যবহারের অযোগ্য দুধ থেকে টেক্সটাইল ফাইবার, অর্থাৎ কাপড় বোনার সুতা তৈরি করেন। এটি এমন একটি আইডিয়া, যা ভবিষ্যতে বস্ত্রশিল্পকে পুরোপুরি বদলে দেয়ার ক্ষমতা রাখে। বলতে কি, রান্নাঘরেই সবকিছুর শুরু।

সদ্য মাইক্রোবায়োলজি পাস করা আঙ্কে সুপারমার্কেট থেকে একটি কিচেন মিক্সচার, মার্মালেড বা মোরব্বা তৈরির থার্মোমিটার ও প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন পাউডার কিনে আনেন। লক্ষ্য ছিল, এমন একটি ফাইবার বা রোঁয়া তৈরি করা, যা থেকে সুতা ও শেষমেশ কাপড় তৈরি করা যায়। আঙ্কে বলেন, আমরা ওই কিচেনে প্রায় ৯ মাস ধরে এক্সপেরিমেন্ট করে এমন একটি ফাইবার তৈরি করার ফরমুলা বের করতে পেরেছি, যা পানিতে গলে না। তিনি বলেন, দুধ টক হয়ে গেলে নিচে ছানার পানি থাকে, উপরে ভাসে সাদা সাদা ল্যাক্টোপ্রোটিন বা দুধের প্রোটিন। সেটি কেঁচে নিলে যে দইয়ের মতো পদার্থ পাওয়া যায়, তা শুকিয়ে প্রোটিন পাউডার তৈরি করা যায়। সেটিই আমাদের র’ ম্যাটেরিয়াল বা কাঁচামাল। সেটি মেখে আমরা একটি তাল তৈরি করি। সেই প্রোটিনের তাল একটি ‘নজল’ দিয়ে চেপে বের করলে এ রকম একটি সূক্ষ্ম ফাইবার পাওয়া যায়, যা মিলিয়ে সুতো তৈরি হয়। তারপর সে সুতো থেকে কাপড়, সে কাপড় থেকে এ রকম একটি সুন্দর ড্রেস। অথচ এটি প্রকৃতিদত্ত। এ ফাইবার খাওয়া পর্যন্ত যায়। সূত্র : ডয়চে ভেলে

👉 আসুন আমরা মিল্ক ফাইবার, সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নিই। 🙂🙂

Table of contents

Fabric name:Milk cotton.

Fabric also known as: Milk fiber, casein fiber.

Fabric composition: Blend of casein protein from milk and acrylonitrile or pure casein protein.

Fabric possible thread count variations:200-300.

Fabric breathabilityn :Reasonably breathable

Moisture-wicking abilities :High.

Heat retention abilities :Medium.

Stretchability (give) :Medium

Prone to pilling/bubbling: Low.

Country where fabric was first produced :Italy and the USA.

Biggest exporting/producing country today:Europe.

Recommended washing temperatures:Warm or hot.

Commonly used in :

Socks, underwear, other forms of intimate apparel, clothing usually made from wool, and household textiles.

✅Writer:

Mohammad Rakib Hasan
3rd Batch
Department of Yarn Engineering
Sheikh Kamal textile engineering College.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

Related Post

Related from author