Tuesday, July 23, 2024
More
    HomeTextile Exihibitionপ্রটেকটিভ টেক্সটাইল সম্পর্কে কিছু কথা

    প্রটেকটিভ টেক্সটাইল সম্পর্কে কিছু কথা

    প্রটেকভিভ টেক্সটাইল কিঃ করোনা ভাইরাসের দরুণ সকলেই “পিপিই” বা পারসোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট এর সাথে পরিচিত। এটি কিন্তু প্রটেকটিভ টেক্সটাইল এর অংশ। প্রটেকটিভ টেক্সটাইল হল সেইসব টেক্সটাইলের সামগ্রীক রুপ,  যেগুলা তাঁদের সৌন্দযবৃদ্ধিক বৈশিষ্ট্যর চাইতে বাইরের পরিবেশ থেকে প্রতিরক্ষামূলক বৈশিষ্ট্যকে প্রাধান্য দেয়।
    এটি টেকনিক্যাল টেক্সটাইলের একটি অংশ। অর্থাৎ এটি কোন নির্দিষ্ট পোশাক নয়। এটি হতে পারে পিপিই, লাইফ জ্যাকেট, অগ্নিনির্বাপক পোশাক ইত্যাদি।

    প্রয়োজনীয়তাঃ দৈনন্দিন জীবনযাত্রায় প্রটেকটিভ টেক্সটাইলের গুরুত্ব অপরিসীম। বাহিরের প্রতিকূল আবহাওয়ার বিরুদ্ধে সুরক্ষা প্রদান করতে সক্ষম। এটির গুরুত্ব নিচে পয়েন্ট আকারে তুলে ধরলামঃ
    *  প্রটেকটিভ টেক্সটাইল ভাইরাস/ব্যাক্টেরিয়া থেকে আমাদের শরীরকে প্রতিরোধ করতে পারে। যেমনঃ পিপিই, মাস্ক ইত্যাদি।
    *  প্রটেকটিভ টেক্সটাইল তাপ ও অগ্নিরোধী। তাই,  ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এগুলা ব্যবহার করে।
    * ঠান্ডার বিরুদ্ধে শরীরকে রক্ষা করতে সক্ষম। অর্থ্যাৎ,  ঠান্ডায় শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখতে সক্ষম। 
    * যান্ত্রিক প্রভাব থেকে সুরক্ষা দেয়। 
    * রাসায়নিক দূষণ থেকে রক্ষা করে। 
    * রেডিও-একটিভ দূষণ থেকে রক্ষা করে।
    * আর্দ্র বায়ু থেকে সুরক্ষা দিতে সক্ষম।
    * বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট শরীরে বুলেট ঢুকতে বাধা দেয়।

    কিছু সাধারণ বৈশিষ্ট্যঃ
    – আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মি  প্রতিরোধী
    – তাপ নিরোধক 
    -পানি প্রতিরোধক
    – স্থায়িত্বতা বেশি 
    – কম শব্দ নির্গমন
    -বায়ু ব্যাপ্তি যোগ্যতা
    – তাপ ও শিখা প্রতিরোধী
    – হালকা এবং কম আয়তন। 
    – মাইক্রো অর্গানিজম প্রতিরোধী।

    কিছু প্রটেকটিভ টেক্সটাইল এবং ব্যবহারের ক্ষেত্রঃ 
    -বুলেটপ্রুফ পোশাকঃ প্রশাসন ক্ষেত্র যেমন আর্মি, পুলিশ, বর্ডার গার্ড,  বোম ডিসপোজাল অফিসাররা এটি ব্যবহার করে থাকে। এই পোশাকগুলি শরীরে বর্ম হিসেবে কাজ করে থাকে।

    -অণুজীব থেকে সুরক্ষায়ঃ করোনাসহ বিভিন্ন ভাইরাস,  ব্যাক্টেরিয়া থেকে সুরক্ষায় ডাক্তারগণ পিপিই ব্যবহার করে।

    – মহাকাশ যাত্রায়ঃ  মহাকাশে প্রতিকূল পরিবেশে  সাধারণ পোশাক সুরক্ষা দিতে পারে না। তাই,  বিশেষভাবে প্রতিরক্ষামূলক পোশাক স্পেস স্যুট ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

    – অগ্নিপ্রতিরোধেঃ দমকলকর্মীদের জন্য তাপ,  চাপের পরিবেশে টিকে থাকা কষ্টকর। তাই,  তাঁদের জন্য বিশেষভাবে প্রস্ততকৃত “ফায়ার ফাইটার স্যুট ” ব্যবহার করা হয়, যা তাঁদের ঘামকে সহজে বাষ্পে পরিণত হতে দেয়।

    – রাসায়নিক বিপদের বিরুদ্ধে পোশাকঃ এ ধরণের পোশাক সাধারণত কেমিক্যাল থেকে শরীরকে সুরক্ষা দেয়। কেমিক্যাল হতে পারে কঠিন, তরল বা বায়বীয়। তাই, বিশেষভাবে প্রস্তুতকৃত উক্ত পোশাকটি রাসায়নিক বিপদ থেকে রক্ষা করে।

    🗺 কিছু প্রটেকটিভ ফাইবারের নামঃ
    * গ্লাস ফাইবার
    * টেনসেল
    * কার্বন ফাইবার
    * ফ্লুরিন ধারণকারী ফাইবার
    * পি বি আই
    * ইন অর্গানিক ফাইবার
    * মেটা-অ্যারামিড ফাইবার
    * প্যারা- অ্যারামিড ফাইবার
    * স্পেনডেক্স ফাইবার
    * পলিপ্রপিলিন ফাইবার

    🏘তথ্যসূত্রঃ www.fibre2fashion.com

    Writer: Mehedi Hasan Shojol
    1st batch,  Wet Process Engineering. 
    Sheikh Kamal Textile Engineering College,  Jhenaidah. 

    RELATED ARTICLES

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -

    Most Popular

    Recent Comments