Home Business বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ফ্যাশন ব্র‍্যান্ডসমূহ, পর্ব: ০৪ - H&M

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ফ্যাশন ব্র‍্যান্ডসমূহ, পর্ব: ০৪ – H&M

ফ্যাশন।

এই শব্দটি শুনলেই মাথায় আসে নানা ধরনের জাকজমকপূর্ণ বিভিন্ন স্টাইলিশ পোশাক। আহা!! এগুলো দেখলেই চোখ জুড়িয়ে যায়। ইচ্ছে করে সবগুলো জামা কিনে নেই। সারাদিন এগুলো পরে ঘুরে বেড়াই। তাই না? হ্যাঁ ঠিক তাই। এইসব স্বপ্ন দেখার পিছনে যে জিনিসটি নেপথ্য ভুমিকা পালন করে সেটি হল বিশ্বের নামকরা ফ্যাশন ব্র্যান্ডগুলো। আজ আমরা সেই রকম একটি  ব্র্যান্ড H&M এর সম্পর্কে জানব।

বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম পোশাক এবং আনুষাঙ্গিক পণ্যের ফ্যাশন ব্র্যান্ড H&M। এটি মূলত একটি সুইডিশ বহুজাতিক পোশাক ব্র্যান্ড যা পুরুষ, মহিলা, কিশোর এবং শিশুদের পোশাক ব্র্যান্ড হিসেবে বিশ্বব্যাপী  সুপরিচিত। ব্র‍্যান্ডটি গ্রাহকদের প্রয়োজনীয়তার সাথে তাদের যত্নের মিশ্রণের মাধ্যমে প্রতিযোগিতায় সর্বদা এক ধাপ এগিয়ে থাকে। এটি পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম ফ্যাশন ব্র্যান্ড।

H&M প্রতিষ্ঠার ইতিহাস:

H&M অর্থাৎ Hennes & Mauritz এর প্রতিষ্ঠাতা Erling Persson। ১৯৪৭ সালে তিনি সুইডেনের ভাস্টারসে প্রথম স্টোর খোলেন যা Hennes (Swedish for ‘hers’) নামে পরিচিত ছিল এবং স্টোরটি একচেটিয়াভাবে মহিলাদের পোশাক বিক্রি করত। দীর্ঘ একুশ বছর পর ১৯৬৮ সালে স্টোরটিতে মহিলাদের পাশাপাশি পুরুষদের জন্যও পোশাক বিক্রয় শুরু করেন এবং প্রতিষ্ঠানের নামকরণ করেন Hennes & Mauritz (H&M)। ২০০০ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম স্টোর খোলার ফলে ইউরোপের বাইরেও ব্র‍্যান্ডটির সম্প্রসারণের সূচনা হয়।

H&M এর বর্তমান চেয়ারম্যান Stefan Persson, যার নামে কোম্পানিটির ২৮% শেয়ার রয়েছে।  ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারি থেকে Helena Helmersson H&M এর CEO এর ভূমিকা পালন করে আসছেন । তিনি ১৯৯৭ সালে H&M এর ক্রয় বিভাগে অর্থনীতিবিদ হিসাবে যাত্রা শুরু করেছিলেন এবং তারপরে ক্রয় ও উৎপাদনের মধ্যে বিভিন্ন ভূমিকা পালন করেন।

H&M এর বর্তমানে বাৎসরিক আয় ২১.৭৩ বিলিয়ন ডলার। এর সদর দপ্তর স্টকহোম, সুইডেন এ অবস্থিত। নভেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত,  H&M এর বিভিন্ন কোম্পানির ব্র্যান্ডের অধীনে ৫০০০ টিরও বেশি স্টোর সহ ৭৪ টি দেশে ১২৬,০০০ ফুলটাইম সমতুল্য পজিশন এবং বিশ্বব্যাপী গড়ে ১২৬,৩৭৬ জন কর্মচারী ছিল। H&M গ্রুপ ৫১ টি অনলাইন মার্কেট এবং ৭৪৮ টি মার্কেট স্টোর সহ একটি বিশ্বব্যাপী ফ্যাশন এবং ডিজাইন সংস্থা।

H&M ব্যাপারে কিছু ইন্টানেস্টিং ফ্যাক্ট:

– H&M এর পরিচালনা পরিষদে ১২ জন সদস্য রয়েছে, এর মধ্যে ৭ জনই মহিলা।এখানে নারী শক্তির প্রতিফলন খুব সহজে লক্ষ্য করা যায়।
-আপনি যদি অনলাইন শপিংকে পছন্দ করে থাকেন  তবে আপনি  H&M এর ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এটি করতে পারেন। প্রতি বৃহস্পতিবার তারা তাদের স্টক পূরণ করে থাকে এবং তাদের পণ্যদ্রব্য আপডেট করে । তাই H&M এর ওয়েবসাইট থেকে  অনলাইনে কেনাকাটা করার সেরা দিনটি হল বৃহস্পতিবার সকাল।
– আপনি চাইলে এখান থেকে আপনার পুরনো জামা-কাপড় exchange করতে পারেন। সেটি যে শুধু মাত্র H&M এর হতে হবে তার কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। আপনি চাইলে যে কোনো ব্র্যান্ড এর পোশাক সেখানে exchange করতে পারবেন। ২০১৩ সাল থেকে H&M এই উদ্যোগটি নেয়।
– H&M সুইডিশ অলিম্পিক এবং প্যারাঅলিম্পিকস দলগুলিকে স্পন্সর করে থাকে ।
– বিভিন্ন সেলিব্রেটিরা H&M এর পোশাক কে তাদের পছন্দের শীর্ষ তালিকায় রাখেন। David Beckham থেকে শুরু করে  Madonna এবং Beyonce ও এই ব্র্যান্ডের সাথে কাজ করেছেন।
– তাছাড়া বিভিন্ন রয়েল ফ্যামিলির সদস্য যেমন Victoria ,The crown princess of Sweden এদেরও বেশিরভাগ সময় এই ব্র্যান্ড এর পোশাক পরিধান করতে দেখা যায়।
– ২০২০ সালের অক্টোবরে H&M ঘোষণা করে যে তারা COVID-19 মহামারীর ফলে 2021 সালে তাদের বিশ্বব্যাপী 5% স্টোর বন্ধ করার পরিকল্পনা করছে।

H&M official online addresses:-

Website- http://www.hm.com
Instagram- https://www.instagram.com/hm
Facebook- https://www.facebook.com/hm
Twitter- https://twitter.com/hm
Youtube- https://www.youtube.com/user/hennesandmauritz

Reference-

Wikipedia
http://www.hm.com
www.fresyes.com
www.boomsbeat.com

Writer information-

Israt Jahan
Textile Engineering (3rd batch)
Jashore University of Science and Technology
Email- [email protected]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

Related Post

Related from author

error: Content is protected !! Don\\\\\\\\\\\\\\\'t Try to Copy Paste.