Home Business (বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ফ্যাশন ব্র‍্যান্ডসমূহ, পর্ব: ০২) - NIKE

(বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ফ্যাশন ব্র‍্যান্ডসমূহ, পর্ব: ০২) – NIKE

খেলাধুলা ভালোবাসেন না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া যাবে বলে আমার মনে হয় না। আর তাই  স্টেডিয়ামে গিয়ে খেলা দেখেননি বা  টিভিতে খেলা দেখেন না তাও খুঁজে পাওয়া যাবে না। লাইভ না দেখলেও হাইলাইট তো দেখেনই! আর যারা খেলা দেখে থাকেন বা খেলাধুলার সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত তাদের কাছে ফুটওয়্যার খুবই ভালোবাসার একটা জিনিস।

ফুট্ওয়্যার কে ভালোবাসেন আর “টিক” মার্ক দেওয়া জুতা কে চিনেন না এমন মানুষকেও খুঁজে পাওয়া যাবে না । জি আমি সেই বিখ্যাত “Nike” এর কথাই বলছি। যারা খেলাধুলার খবর রাখেন না তারাও Nike ব্র‍্যান্ডের নাম শুনেছেন। আজকে আপনাদের সামনে এই Nike ব্র‍্যান্ড সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করব।

Nike প্রতিষ্ঠার ইতিহাস:

Nike ব্র‍্যান্ডের যাত্রা শুরু হয় ১৯৬৪ সালের জানুয়ারি মাসে University of Oregon এর ক্রীড়াবিদ Knight এবং তার কোচ Bill Bowerman এর হাত ধরে । শুরুতে এটি  Blue Ribbon Sports (BRS)  নামে পরিচিত ছিল। সংস্থাটি প্রাথমিকভাবে জাপানের জুতো প্রস্তুতকারক ওনিতসুকা টাইগার (বর্তমানে ASISS) এর সাপ্লায়ার হিসাবে কাজ করেছিল। ব্যবসার প্রথম বছরেই তারা ১৩০০ জোড়া জুতা বিক্রি করে এবং ৮০০০ ডলার আয় করে। এর ঠিক পরের বছর অর্থাৎ ১৯৬৫ সালে তাদের আয় বেড়ে দাঁড়ায় ২০০০০ ডলার। ১৯৬৬ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার সান্তা মনিকার  পিকো বুলেভার্ডে তারা তাদের প্রথম রিটেইল শপ চালু করে এবং এর সাফল্য দেখে পরের বছরই ম্যাসাচুসেটসের ওয়েলেসলিতে পূর্ব উপকূলে তাদের আরেকটি শপ প্রতিষ্ঠা করে। BRS এর নাম Nike হিসেবে ব্যবহৃত হয় ১৯ ই জুন, ১৯৭১ সালে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পেটেন্ট এবং ট্রেডমার্ক অফিসে ২২ জানুয়ারী, ১৯৭৪ সালে Nike নামেই  নিবন্ধিত হয়েছিল।

১৯৭৬ সালে, সংস্থাটি সিয়াটলে অবস্থিত John Brown and Partners কে  তার প্রথম বিজ্ঞাপনী সংস্থা হিসাবে নিয়োগ করে। পরের বছর, সংস্থাটি নাইকের জন্য প্রথম বিজ্ঞাপন তৈরি করেছিল, যার নাম  “There is no finish line” যাতে কোনও নাইকের পণ্য দেখানো হয়নি। ১৯৮০ সাল নাগাদ Nike মার্কিন অ্যাথলেটিক জুতার বাজারে ৫০% মার্কেট শেয়ার অর্জন করে এবং সংস্থাটি সে বছরের ডিসেম্বরে প্রকাশ্যে যায়। এই বিজ্ঞাপন সংস্থাটি কো-ফাউন্ডার Dan Wieden, Nike এর সেই বিখ্যাত স্লোগান “Just Do It” Nike এর বিজ্ঞাপনে ব্যবহার করেন এবং আজও এটি Nike এর স্লোগান হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

Nike এর সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-

সদর দপ্তরঃ বিভারটন, ওরেগন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
Revenue: ৩৭.৪ বিলিয়ন  USD
বর্তমান CEO: John Donahoe
বর্তমান নির্বাহী চেয়ারম্যান : Mark Parker
কর্মচারীর সংখ্যাঃ ৭৫,৪০০
ওয়েবসাইটঃ nike.com
Twitter followers: 8.3M
উৎপাদনকারী পণ্য সমূহঃ Nike মূলত অ্যাথলেটিক ফুট্ওয়্যার তৈরি করে থাকে তাছাড়া তারা বিভিন্ন খেলাধুলা সামগ্রীও তৈরি করে।

অঞ্চল্ভিত্তিক Nike এর রাজস্ব ভাগের বিবরণ(২০২০ সালের হিসাব অনুযায়ী):

North America: 41%
EMEA* : 26%
Greater China: 19%
APLA** : 14%

Nike এর সম্পর্কে কিছু ইন্টারেস্টিং ফ্যাক্ট:

  • এই ব্র্যান্ডের বেশির ভাগ ফ্যানরাই এর নাম ভুল ভাবে উচ্চারন করে থাকেন। এর প্রকৃত উচ্চারন “ny-kee” এবং নামটি এসেছে গ্রীক বিজয়ের দেবীর নামের অনুসারে।
  • বিখ্যাত Nike লোগোটি পোর্টল্যান্ড স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ক্যারলিন ডেভিডসন মাত্র ৩৫ ডলারের  বিনিময়ে ডিজাইন করেছিলেন। পরে তাকে  ৬৪০,০০০ ডলারের বেশি Nike পণ্য দেওয়া হয়েছিল।
  • “Just Do It” স্লোগানটি, যা এখন সারা বিশ্বে স্বীকৃত,এটি গ্যারি গিলমোরের শেষ কথা দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিল।তিনি একজন সিরিয়াল কিলার ছিলেন এবং তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ার আগে বলেছিলেন “Let’s do it” ।
  • Nike সারা বিশ্বের হাজার হাজার দোকানে তাদের  ফুটওয়্যার , পোশাক এবং ক্রীড়া সামগ্রী বিক্রি করে থাকে । তারা  এক বছরে বছরে প্রায়  900 মিলিয়নের বেশি আইটেম বিক্রি হয়।
  • বৃহত্তম Nike স্টোর লন্ডনের অক্সফোর্ড স্ট্রিটে অবস্থিত এবং এর আয়তন  ৪২০০০ বর্গফুট ।
  • নাইকের পণ্যগুলির অনেকগুলি নাম স্পোর্টস দল থেকে নেওয়া হয়েছে। উদাহরণস্বরূপ,  “Columbia Blue” নামকরণ করা হয়েছে “Columbia Lions” নামের একটি দল, যার  লোগো নীল রঙের।
  • Nike যখন তাদের বোস্টনের শপে “Get High” লিখা একটি টি-শার্ট প্রদর্শনী তে রেখে ছিল তখন  মেয়র টমাস মেনিনো এই সংস্থাটির সমালোচনা করেছিলেন।
  • Zoom Air নাইকের অন্যতম জনপ্রিয় জুতা যা ১৯৯৫ সালে বাজারে আনা হয়েছিল । তবে প্রথমে এর নাম Tensile Air   দেওয়া হয়েছিল।
  • Nike এর জুতোওয়ালা মূলত চীন, ইন্দোনেশিয়া এবং ভিয়েতনামে নির্মিত হয়, তবে বেশিরভাগ জুতা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও তৈরি করা হয়।
  • Nike এরন্যতম সহ-প্রতিষ্ঠাতা Phill Knight প্রথমে এর নাম রাখতে চেয়েছিলেন “Dimension 6” কিন্তু পরে তা আর কার্যকর হয় নি।

Reference-

Wikipedia
www.thefactshop.com
www.britannica.com
www.companieshistory.com

Writer Information –

Omar Saif
Textile Engineering (3rd batch)
Jashore University of Science and Technology
Email- [email protected]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

Related Post

Related from author