সিঙ্গাপুর এর পোশাক সংস্কৃতি

0
350

সিঙ্গাপুর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি দ্বীপরাষ্ট্র। দেশটি মালয় উপদ্বীপের নিকটে অবস্থিত। এর সরকারি নাম সিঙ্গাপুর প্রজাতন্ত্র ।
সিঙ্গাপুরের সংস্কৃতি পশ্চিমা ঘরানার হলেও এখানে গোঁড়া হিন্দুবাদ, গোঁড়া খ্রিষ্টানবাদ, গোঁড়া ইসলামবাদ (মালয় সংস্কৃতি) এবং গোঁড়া বৌদ্ধবাদ (চাইনিজ সংস্কৃতি) আছে।

বাজু কুরুং হচ্ছে মালয় মহিলাদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক এবং সিংগাপুর এর জাতীয় পোশাক।বাজু কুরুং পোশাকটির উপরের অংশ ব্লাউজ এবং নিচের অংশে রয়েছে লম্বা স্কার্ট বা ঘাঘরা।মালয় মহিলারা তাদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি বজায় রাখার জন্য প্রতি শুক্রবার এই পোশাক পরিধান করে তাদের কাজ করে থাকে।দুই ধরনের বৈশিষ্ট্যপূ্র্ণ পোশাক রয়েছে।প্রথমত বাজু কুরুং তেলুক বেলাংগা ,দ্বিতীয়ত বাজু কুরুং কেকাক মুছাক। বাজু কুরুং তেলুক বেলাংগা এবং বাজু কুরুং কেকাক মুছাক এর মধ্যে প্রধান পার্থক্য হচ্ছে বাজু কুরুং কেকাক মুছাক এর ব্লাউজে কলার রয়েছে।উওর মালোয়েশিয়ার মহিলারা বাজু কুরুং পোশাকের সাথে একটি হিজাব পরিধান করে থাকে যার নাম টুডুং।

বাজু মেলাউ হচ্ছে মালয় পুরুষদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক।এর উপরের অংশ ঢিলেঢালা লম্বা হাতার জামা এবং নিচে লম্বা পাজামা।একটি লম্বা বোনা কাপড় এরা কোমরে পেচিঁয়ে পরিধান করে থাকে যা স্যাম্পিন নামে পরিচিত।বাজু মেলাউ পোশাকের ২ ধরনের বৈশিষ্ট্য আছে।প্রথমত কেকাক মুছাক জামা যার মধ্যে তিনটি পকেট আছে এবং ২টি পকেট নিচে ,একটি পকেট বুকের বাম পাশের উপরে অবস্থিত। তেলুক বেলাংগা জামার ২টি পকেট নিচে অবস্থিত।

চেয়ংসাম সিংগাপুর এর মহিলাদের একটি আধুনিক ঐতিহ্যবাহী পোশাক, সুরুচিপূর্ণ এই পোশাকটি খুবই আরামদায়ক এবং সুন্দর। সিল্কের তৈরী এই পোশাকটির কলার রয়েছে।চেয়ংসাম পোশাকটি আধুনিক পরিধেয় হলেও এটি সিংগাপুর এর ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি বজায় রাখে।

সিংগাপুর এর পিরানাকান মহিলাদের জন্য একটি মর্যাদাপূর্ণ পোশাক হচ্ছে সারং কিবায়া।এটি একটি আঁটসাঁট পোশাক যার উপরের অংশে রয়েছে একটি ব্লাউজ এবং নিচে সুন্দর বাটিকের একটি স্কার্ট বা ঘাঘরা।২০ শতকে এই ঐতিহ্যগত পোশাকটি সিংগাপুর এর সকল মহিলাদের কাছে প্রতিমা হিসাবে কাজ করে যখন বিভিন্ন টিভি শো তে ছোটো ফিয়না এবং বিখ্যাত চরিএ ইভান হেং তা পরিধান করে।

সিংগাপুর এর পুরুষ এবং মহিলারা খুবই শৌখিন এবং তারা তাদের পোশাক পরিধানের ব্যাপারে খুব সচেতন।তারা আধুনিকতায় পৌছাঁনোর পরও তাদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বজায় রাখে।
সিংগাপুর এর পুরুষ ও মহিলারা নতুন আধুনিকতার ছোয়ায় পরিবর্তিত হলেও তারা তাদের পোশাক সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য পরিবর্তন করেনি।তারা তাদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে সম্মান করে পোশাক পরিধান করে থাকে।

Fahad Bin Alam Rafi
Department Of Textile Engineering

BGMEA University Of Fashion And Technology (BUFT)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here