Home Career Effective Communication through Constructive Feedback

Effective Communication through Constructive Feedback

এই যে !! জিহ হা। ঠিক ধরেছেন আমি আপনাকেই বলছি, আপনার সিভি অনুসারে তো আপনি একজন ইফেক্টিভ কমিউনিকেটর, থিংকার, লিসেনার এন্ড আ ভেরি স্ট্রং টিম প্লেয়ার ।

তা প্রকৃতপক্ষেই কি আপনি আপনার টিমের সাথে, নিজের কর্মক্ষেত্রে ইফেক্টিভলি কমিউনিকেশন করছেন??

আচ্ছা ইক্টু ভেঙ্গে বলি একজন স্ট্রং টিম প্লেয়ার হয় ঠিক তখনি যখন সে ইফেক্টিভলি কমিউনিকেশন করে আর ইফেক্টিভ কমিউনিকেশন ঠিক তখনি সম্ভব যখন সেখানে গঠনমূলক আলোচনা সমালোচনা উপস্থিত থাকে। অর্থাৎ ইফেক্টিভ কমিউনিকেশনে (FEEDBACK/ প্রতিক্রিয়া) থাকাটা কিন্তু আবশ্যক।

“Feedback” এর চুল ছেড়া বিশ্লেষণ সম্পর্কে জেনে নিজেকে প্রো-এক্টিভ কমিউনিকেটর হিসেবে প্রমান করার দৌড়ে চাইলেই নিজেকে এক ধাপ এগিয়ে রাখতে পারেন পুরো আর্টিকেল পরে। সেই কতোক্ষণ যাবৎ ফিডব্যাক শব্দটি অনর্থক চয়ন করছি তো করছিই এবার না হয় ইক্টু কাজের কথায় আশি।

ভাই ফিডব্যাক এর কোন অযাচিত ভারী, কিতাবী কথা আমি আপনাদের জোরপূর্বক গলাধঃকরণ করতে বাধ্য করবো নাহ বরং আপনাদেরকে কিভাবে ইক্টু সহজে, উদাহরণ দিয়ে ধরিয়ে দেওয়া যায় তার সর্বাত্তক চেষ্টাই করবো পুরো আর্টিকেল জুড়ে। ফিডব্যাক কিংবা প্রতিক্রিয়া কে আমরা অনেকেই ক্রিটিসিজম এর সাথে মিশিয়ে ফেলি অদ্ভুত শুন্তে হলেও সত্তি আমাদের এই দুটো শব্দ মিশিয়ে ফেলার যথার্থ কারণ ও আছে বৈকি। ভাবছেন কিভাবে?? চলুন একটি গাণিতিক ব্যখ্যা দেওয়া যাক।

FEEDBACK is not equaled to CRITICISM

again,

FEEDBACK is equaled to CONSTRUCTIVE CRITICISM

কি দিলাম তো গোলপাক বাধিয়ে?? ছোট থেকে একটা লাইন শুনতে শুনতে বড় হয়েছি, “a word can start or stop a war.” অর্থাৎ একটি শব্দই একটি যুদ্ধ লাগাতে কিংবা থামাতে পারে, কি বিশ্বাস হলো নাহ তাই তো?

ওহ তো “ছোট-মানুষ”
ওহ তো “ছোট-লোক”

এবার চিন্তা করুণ তো?? এক্টা শব্দ “লোক” ই কি আপনার দু পাটির ৩২ টা দাঁত এর কিছু দাঁত নাই করাতে অবদান রাখতে যথেষ্ট নয় কি??? এখন নিশ্চই আপনিও আমার সাথে দ্বি-মত করবেন নাহ? একটা শব্দই এক্টা যুদ্ধ লাগাতে কিংবা থামাতে পারে,জিহ হা ঠিক সেই একই ভুলি করি আমরা CRITICISM/সমালোচনা এবং CONSTRUCTIVE CRITICISM / গঠনমূলক সমালোচনার এর মাঝে গোলপাক পাকিয়ে।

এবার ইক্টু সিদা সাপ্টা ভাষায় ফিডব্যাক এর সঙ্গায়ন করা যাক।

আমরা অতীতে ঘটে যাওয়া কোন ব্যাপারে বর্তমানে ফিডব্যাক কিংবা গঠন মূলক সমালোচনা করি যাতে সেই ব্যক্তি ভবিষ্যৎ এ কাজটা করার সময় পূর্ববর্তী কাজের ছোট ছোট ভুল গুলো থেকে শিক্ষা নিয়ে আরো সুন্দর এবং গোছালো ভাবে সেই কাজটিকে পূর্নতা দান করতে পারে।

সমালোচনা এবং গঠনমূলক সমালোচনার ভেদাভেদ করতে পারছেন নাহ?

ধরে নিন আপনি কোন একটি পোস্টার প্রেজেন্টেশন কম্পিটিশনের জন্য কিছু স্লাইড বানিয়েছেন এবং আপনার অভিজ্ঞ বড় ভাইয়ের কাছে ফিডব্যাক চাইলেন।

এখন দুই ধরণের ফিডব্যাক আসতে পারেঃ

চিত্র ১ঃ কি বানাইছিশ, এটা দিয়ে কম্পিটিশনে জিতবি ভাবছিশ??? হা হা হা!!!!
চিত্র ২ঃ হা বেশ ভালো হয়েছে, তবে সোর্স, কালার কম্বিনেশন এবং স্লাইডে শুধু প্রয়োজনীয় তথ্য গুলো রাখলে আরো ভালো হতো।

আমি যদি ভুল না করি আপনি অবশ্যই চিত্র দুই কেই গঠনমূলক সমালোচনা হিসেবে গ্রহণ করবেন?? আচ্ছা এখন বলুন তো, আপনার জীবনে কিংবা কমিউনিকেশন নিজের ডেভেলপমেন্টে, টিম-ওয়ার্কে পজিটিভ ফিডব্যাক কিংবা গঠনমূলক সমালোচনার প্রয়োজনীয়তা ঠিক কতোখানি?? আচ্ছা আপনাদেরকে এর তাৎপর্যটি আরেক্টু পরিষ্কার করছি KEN BLANCHARD এর একটি লাইনের মাধ্যমে।

“Feedback is the breakfast of champions”

বলে রাখা ভালো পজিটিভ ফিডব্যাক এর কিছু রুলস রয়েছে, কিছু মডেল রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতমঃ

১. Sandwich model.
২. Ask Tell Ask model.

সেগুলো এখানেই আলোচনা করার তীব্র ইচ্ছা থাক্লেও আপনাদের ইন্টারেস্ট ধরে রাখার খাতিরে সেগুলো নিয়ে আলোচনা করবো আমার Effective Communication through constructive Feedback part 2 এ। আর সে পর্যন্ত পুরো আর্টিকেল জুড়ে আপনাদের দিকে ছোঁড়া আমার প্রশ্ন গুলোর উত্তর পাওয়ার আর্জি জানিয়ে শেষ করছি।

ধন্যবাদ

Writer Information:

Arafat Khan Pritom
Campus Ambassador (DWMTEC)
Contact: 01312678164
E-mail: [email protected]
Linkedin: https://syr.us/9T9

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

Related Post

Related from author

error: Content is protected !! Don\\\\\\\\\\\\\\\'t Try to Copy Paste.