Tuesday, May 28, 2024
More

    Silk

    রেশম হল রেশমপোকার গুটি থেকে তৈরি সুতা দিয়ে বোনা একপ্রকার সূক্ষ্ম ও কোমল তন্তু। যা একটি প্রাকৃতিক ফাইবার। ১ম পর্বে আমরা জানব রেশম পোকা ও এর বিভিন্ন জাত সম্পর্কে।

    রেশম পোকার ইংরেজি নাম Silkworm এবং এর বৈজ্ঞানিক নাম Bombyx mori.

    এই পতঙ্গের শূককীট দশার শেষ পর্যায়ে, এদের শরীরের লালা গ্রন্থি নিঃসৃত রস বাতাসের সংস্পর্শে এলে তা বিশেষ ধরনের আঁশে পরিণত হয়। এই আঁশকে বিশেষ প্রক্রিয়ায় সুতায় পরিণত করা। এই সূতাই রেশমসুতা নামে পরিচিত। এই কারণে রেশম উৎপাদনকারী পতঙ্গ বা পোকাকে ‘রেশম পোকা’ বলা হয়।

    বহু আগে থেকে বাংলাদেশে রেশমের চাষ হয়ে আসছে। চীন থেকে রেশমের চাষ বাংলাদেশে শুরু হয়েছিল, না কি এখানাকার স্থানীয় মানুষ নিজেরাই আবিষ্কার করেছিল এ নিয়ে বিতর্ক রয়েছে।বাংলায় দীর্ঘদিন থেকে চার ধরনের রেশম তৈরি হয়ে আসছে:

    ★ মালবেরি
    ★ এন্ডি
    ★ মুগা
    ★ তসর

    মালবেরি:

    এই প্রজাতি তৈরি হয় বমবিকস বর্গের রেশমপোকার গুটি থেকে, এ ধরনের রেশম পোকা মালবেরি বা তুঁত গাছের পাতা খায়।

    এন্ডি:

    এই প্রজাতি তৈরি হয় ফিলোসেমিয়া বর্গের রেশম পোকা থেকে যারা ক্যাস্টর(Ricinus) গাছের পাতা খায়।

    মুগা:

    এই প্রজাতি তৈরি হয় অ্যান্থেরিয়া আসমেনসিন বর্গের রেশমগুটি থেকে, যারা কুল, তেজপাতা ও কর্পুরের পাতা খায়।

    তসর:

    এই প্রজাতি তৈরি হয় অ্যানথেরি বর্গভুক্ত রেশমগুটি থেকে যারা ওক গাছের পাতা খায়।

    উপরোক্ত রেশম গুলোর মধ্যে মালবেরি রেশম সবচেয়ে মূল্যবান হিসেবে বিবেচিত।

    Writer information:
    Ashik Mahmud
    Department of Textile Engineering
    National Institute of Textile Engineering & Research

    RELATED ARTICLES

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -

    Most Popular

    Recent Comments