Home RMG পোশাক এবং টেক্সটাইল শিল্পে করোনভাইরাস এর প্রভাব

পোশাক এবং টেক্সটাইল শিল্পে করোনভাইরাস এর প্রভাব

সিএমএআই ভারতের পোশাক এবং টেক্সটাইল শিল্পের উপর করোনভাইরাস প্রভাব সম্পর্কে বিশ্লেষণ করার চেষ্টা করেছে, চীনের ভবিষ্যত উৎপাদনের অনিশ্চয়তা এবং কাঁচামাল সরবরাহের অভাব যা ভারতীয় উৎপাদনকারীদের মুখোমুখি হতে পারে।

চীনের করোনাভাইরাসের ফলে লকডাউন ভারতীয় পোশাক এবং টেক্সটাইল শিল্পকেও প্রভাব ফেলবে উভয় পক্ষেএবং চীনের বিরাজমান পরিস্থিতি এবং উৎপাদন শুরুর অনিশ্চয়তার সাথে ভারতীয় নির্মাতারা যারা চীন থেকে কাঁচামাল সরবরাহের উপর নির্ভরশীল তাদের পক্ষে বড় সমস্যা দেখা দিয়েছে। এদিকে, বৈশ্বিক পোশাক ব্র্যান্ডগুলি ভারতের মতো বিকল্প উৎপাদন গন্তব্যগুলিকে দেখতে হবে।

১.চিনের কার্টাইল করা ভারতের ইয়ার্নের রপ্তানিঃ

ভারত গড়ে মাসে মাসে ২০-২৫ মিলিয়ন কেজি সুতির সুতা রপ্তানি করে চীনকে। দেশীয় বাজারে সুতির সুতার দাম তিন থেকে চার শতাংশ কমেছে কারণ ব্যবসায়ীরা সেখানে বিদ্যমান পরিস্থিতিটির কারণে চীন থেকে কমে আসা চাহিদা প্রত্যাশা করছেন। করোনাভাইরাসকে আরও দীর্ঘায়িত করার ফলে চীনের সুতির সুতোর আমদানি হ্রাস পাবে এবং এর ফলে ভারতে সুতির সুতা রপ্তানি ব্যবসায়ের উপর প্রভাব পড়বে। এটি ভারতের উদ্বৃত্ত সুতির সুতাকে দেশীয় বাজারে বদলে দেবে, তুলোর সুতার দাম আরও কমিয়ে দেবে।

২. সিন্থেটিক টেক্সটাইলস এবং ট্রিম্সের আমদানিতে সমস্যাগুলিঃ

ভারত প্রতি বার্ষিকে চীন থেকে কৃত্রিম সুতা এবং ৩৬০ মিলিয়ন ডলারের সিন্থেটিক ফ্যাব্রিক আমদানি করে। এটি বোতাম, জিপারস, হ্যাঙ্গারস এবং সূঁচের মতো মার্কিন ডলার থেকেও বেশি পরিমাণে ১৪০ মিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করে। এই কাঁচামালগুলির এত বিশাল চাহিদা মেটাতে ভারতের কাছে দেশীয় সরবরাহের ভিত্তি নেই।

মহামারীটির সাথে সাথে চীনা নববর্ষ থেকে চীনা টেক্সটাইল কারখানাগুলি কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। যদি এই প্রাদুর্ভাব অব্যাহত থাকে, ভারতীয় গার্মেন্টস উৎপাদনকারীদের স্থানীয় সোর্সিং সহ অন্যান্য বিকল্পের দিকে নজর দেওয়া দরকার, যার ফলস্বরূপ সমাপ্ত পণ্য ব্যয় তিন থেকে পাঁচ শতাংশ বাড়তে পারে। এগুলি ছাড়াও, অল্প সময়ের মধ্যে বিক্রেতাদের সনাক্তকরণের ক্ষেত্রে নেতৃত্বের সময়, গুণমান এবং ব্যয় আরও বেশি হতে পারে।

৩. সুরক্ষামূলক মাস্কের বিশ্বজুড়ে চাহিদাঃ

চীন বিশ্বজুড়ে অস্ত্রোপচারের মুখোশ এবং প্রতিরক্ষামূলক পোশাক সহ প্রচুর পরিমাণে চিকিৎসা প্রতিরক্ষামূলক গিয়ার আমদানি করছে। অন্যান্য দক্ষিণ-পূর্ব দেশ এবং এমনকি পশ্চিমা দেশগুলিতে এই জাতীয় পণ্য বিক্রয় খুব সমস্যা দেখা দিয়েছে। এই জাতীয় পণ্য সরবরাহ চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম হয় নি দেশগুলো।
২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারীতে, ভারত মহামারী এড়াতে পোশাক এবং মুখোশ সহ সমস্ত ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জামের রপ্তানি নিষিদ্ধ করেছিল। যাইহোক, প্রায় এক সপ্তাহ পরে, চীন এই রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করার জন্য এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে।

৪. পিটিএ-তে ডাম্পিং ডিউটি ​​অপসারণের সুবিধা পুনরুদ্ধার করতে ভারতবর্ষের সিনথেটিক ভ্যালু

ভারত সরকার সিন্থেটিক টেক্সটাইল শিল্পকে শক্তিশালী করার জন্য শুদ্ধ টেফথালিক অ্যাসিড (পিটিএ) -এর 2.5 শতাংশ অ্যান্টি-ডাম্পিং শুল্ক বিলুপ্ত করে ভারতে তৈরি সিন্থেটিক সুতাগুলিতে বড় ধরনের ত্রাণ সরবরাহ করেছে। তবে হুবুহূ এবং মধ্য চীনের বেশিরভাগ অংশই ফিডস্টকের উৎপাদন কেন্দ্র হ’ল ভার্চুয়াল স্থবির। সুতরাং, চীন থেকে পিটিএ আমদানি এই মুহুর্তে কোনও বিকল্প নয় এবং নির্মাতারা তাদের চাহিদা পূরণের জন্য এখনও দেশীয় সরবরাহের উপর নির্ভর করতে বাধ্য হয়।

৫.চীন থেকে অর্ডার বিভাজন

জানুয়ারী মাসে ইউরোপ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতারা পরের মৌসুমে পোশাক রফতানিকারীদের সাথে আলোচনার জন্য সাধারণত চীন ভ্রমণ করেন। তবে করোনাভাইরাস ভয়ের কারণে বেশিরভাগ ক্রেতাই বিকল্পের দিকে চেয়ে আছেন।

এখনও একটি কারণ যা চীনের পক্ষে খেলছে তা হ’ল বেশ কয়েকটি সংস্থা ইতিমধ্যে বসন্ত এবং গ্রীষ্মের মৌসুমে তাদের পোশাক তৈরি করেছে। শ্রমিকরা প্রায়শই চিনের নববর্ষ ঘিরে ছুটিতে বাড়ি ফিরেন – প্রাদুর্ভাবের ঠিক আগ মুহূর্তে – তাই সংস্থাগুলি এই সময়ের মধ্যে উৎপাদন মন্দার জন্য পরিকল্পনা করে।

তবে, পরিস্থিতি যদি পরের দু’মাস ধরে চলতে থাকে, ক্রেতারা ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া বা দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় সরবরাহকারী যে কোনও সরবরাহকারীর চেয়ে বাংলাদেশ ও ভারত এগিয়ে যাওয়ার পক্ষে অন্যান্য বিকল্পগুলি গুরুত্বের সাথে অনুসন্ধান করতে বাধ্য হবে। একটি সম্পূর্ণ সরবরাহ শৃঙ্খলা থাকায় ভারত এগিয়ে যায় তবে এর উল্টো দিকটি হ’ল ভারতীয় পোশাক প্রস্তুতকারকদের কাছে কোনও বিশ্বাসযোগ্য বিকল্প হিসাবে নিজেকে উপস্থাপনের জন্য স্কেল বা ব্যয় প্রতিযোগিতাও নেই।

Source:Latest News From Apparel World News

Writer:
Miraz Hossain
BGMEA University of Fashion & Technology
Research Assistant
টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারস

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

বাংলাদেশে টেক্সটাইল শিল্পের অগ্রযাত্রা

"মেঘ দেখে তোরা করিস নে ভয়, আড়ালে তার সূর্য হাসে"। কবির এই কবিতার মেঘ...

কার্ডিং মেশিন- হার্ট অফ স্পিনিং নিয়ে বিস্তারিত

কার্ডিং মেশিন টেক্সটাইল স্পিনিং মিলের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মেশিন। সুতা তৈরির সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে সবচেয়ে কার্যকর ভূমিকা...

মেঘেদের রাজ্যে টেক্সটাইলের রাজত্ব

পাখির মত উড়তে কার না ইচ্ছে করে।মেঘের সাথে সখ্যতা গড়তে চায় মানুষ সবসময়।সভ্যতার সূচনালগ্ন থেকেই মানুষ উড়ার চেষ্টা...

গল্পটা মাছ ধরার জালের

"ইলিশ মাছের তিরিশ কাঁটা, বোয়াল মাছের দাড়ি,ইয়াহিয়া খান ভিক্ষা করে, শেখ মুজিবের বাড়ি।" তখনকার...

Related Post

“Swiss Textile Machinery Association এর আশি বছরের পথ চলা”

আজকে আপনাদের সবাইকে Swiss Textile Machinery Association এর গল্প বলবো। যখন একটি সংস্থা তার ৮০ তম বছর বয়সে পৌছায়, অবশ্যই এর বিশাল...

গার্মেন্টস এক্সেসরিজ

পোশাক শিল্পে ফ্যাব্রিক যতটা গুরুত্বপূর্ণ উপাদান তেমনি গার্মেন্টস এক্সেসরিজও গুরুত্বপূর্ণ।পোশাক তৈরির ক্ষেত্রে ফ্যাব্রিক প্রাথমিক উপাদান কিন্তু একটি পোশাক...

history of textiles,RMG factor,future prospect of textiles in Bangladesh

The term ‘Textile’ is a Latin word originated from the word ‘texere’ which means ‘to weave’. Textile refe...

বেসিক টেক্সটাইল সিরিজ২য় পর্বঃ ইয়ার্ণ ম্যানুফ্যাকচারিং-২

পোশাক শিল্পের ভিত্তি ইয়ার্ণ বা সুতো । ইয়ার্ণ তৈরীর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াকে স্পিনিং বলে যা ইয়ার্ণ ম্যানুফ্যাকচারিং এর অন্তর্ভূক্ত । সেই ধাপগুলো সম্পর্কে...

Related from author

ব্লো রুমের Waste Calculation যেভাবে বের করবেন

আমাদের আলোচ্য বিষয় Waste Calculation, অর্থাৎ সেই সব নিষ্ফল বস্তু বা অপদ্রব্য হিসাব করা যা আমাদের মূল কাজে বাঁধা প্রদাণ করে। সাধারণত...

Trimmings এবং Accessories গল্প

আমরা যে পোশাক পরিধান করি তার মূল এবং প্রধান অংশটি হচ্ছে ফ্যাব্রিক। একটি সম্পূর্ণ পোশাক তৈরি করতে ট্রিমিংসস এবং আনুষাঙ্গিক কিছু সহায়ক...

পাকিস্তানে নির্মাণাধীন কিছু E.P.Z. এর কথা

আমরা সবাই কিন্তু ছোটবেলায় পাকিস্তানের খাইবার গিরিপথের নাম শুনেছি। তো পাকিস্তানের এই খাইবার প্রদেশে বিশাল বড় বড় অনেকগুলো S.E.Z. বা স্পেশাল ইকোনমিক...

নির্দিষ্ট ফ্যাব্রিক জিএসএমের জন্য যেভাবে ইয়ার্ন কাউন্ট নির্বাচন করবেন

টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এ সবচেয়ে পরিচিত শব্দ গুলির মধ্যে দুটি হচ্ছে 'ইয়ার্ন কাউন্ট' এবং 'ফ্যাব্রিক জিএসএম'।ইয়ার্ন কাউন্ট: কাউন্ট হলো ইয়ার্নের একক ভরের দৈর্ঘ্য...
error: Content is protected !! Don\\\\\\\'t Try to Copy Paste.