Home Motivational প্রফেশনাল ট্রেইনিং

প্রফেশনাল ট্রেইনিং

আজকে একটা সত্যি কথা বলতে যাচ্ছি যে, আমরা যারা রানিং স্টুডেন্ট অথবা যারা চাকরি করছি, সবাই একটা কথা নিঃসন্দেহে বলতে পারি এবং মেনে নিতে পারি যে, আমাদেরকে ভারসিটি লাইফে যা পড়ানো হয়, ইন্ডাস্ট্রিতে গিয়ে তার বেশির ভাগ অংশেরই মিল খুঁজে পাই না। যেখানে ভার্সিটি লাইফের পড়াশুনা সম্পূর্ণরূপেই তত্ত্বগত সেখানে ইন্ডাস্ট্রি লাইফ সম্পূর্ণভাবে প্রায়োগিক। একরকম বলাই যায় যে, আকাশ পাতাল তফাৎ। আর এই ক্ষেত্রে আকাশ পাতাল তফাতের পরিমান কমাতে পারে, টেক্সটাইল রিলেটেড বিভিন্ন ট্রেইনিং সেন্টারগুলো।

কিন্তু হতাশার বিষয় এই যে, আমরা এখনও অনেক ট্রেইনিং সেন্টার সম্পর্কে জানি না যারা কিনা নাম মাত্র মুল্যে বিভিন্ন ট্রেইনিং দিয়ে থাকে। আজকে আপনি এক জায়গায় চাকরীর ইন্টারভিউ দিতে যাচ্ছেন, আপনাকে কোম্পানির সিইও একটি কলম বিক্রি করে দেখানোর জন্য বললও। কিন্তু আপনি পারলেন না। আপনার কোনো ডিল ক্লোজ করার স্কিল নেই। অবশ্যই আপনাকে চাকরি দিবে না। তাই আমাদের মত মানুষদের জন্য একমাত্র আশার আলো হতে পারে এই ট্রেইনিং।

কেন ট্রেইনিং গ্রহন করা জরুরী ?

১) আপনার পারফর্মেন্স বৃদ্ধি করতে !!

একজন ট্রেইনিং প্রাপ্ত মানুষই পারে, কোনো প্রডাকশন ফ্লোরে ওনার নিজের পারফর্মেন্সের সেরাটা দিতে। ট্রেইনিং একজন মানুষকে ওনার নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে বুঝতে সহায়তা করে। এতে করে একজন মানুষের আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পায়। আর আমরা সবাই জানি যে, আমাদের এই ইন্ডাস্ট্রি কত বেশি প্রতিযোগিতামূলক। আর এই অবস্থায় কোনো কোম্পানি অবশ্যই একজন দক্ষ এবং ট্রেইন্ড মানুষের দ্বারাই সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারে।

২) নিজের দুর্বলতা সম্পর্কে জানতে !!

একজন মানুষের নিজের দুর্বলতা কাটিয়ে উঠার এবং ঐ দুর্বলতা সম্পর্কে জানার এক মোক্ষম সমাধান হতে পারে, একটি ডেভেলপমেন্ট ট্রেইনিং প্রোগ্রাম।

৩) প্রোডাকশন ফ্লোরের প্রোডাক্টিভিটি বৃদ্ধি করতে !!

কোনো একটি প্রোডাকশন ফ্লোরের প্রোডাক্টিভিটি বৃদ্ধি তখনি হয়, যখন ফ্লোরে কিছু স্কিল্ড মানুষ কাজ করে। আপনার ফ্যাক্টরির যন্ত্রপাতি কিন্তু ফিক্সড।

৪) কোম্পানির সুনাম বৃদ্ধি করতে !!

প্রোডাকশন ফ্লোরে ইঞ্জিনিয়ারদের ভ্যালু তখনি বৃদ্ধি পায়, যখন তাঁদের মধ্যে ভ্যালু এড করা হয়। অবশ্যই এই ভ্যালু কোম্পানির নিকট ফেরত আসে, যখন ইঞ্জিনিয়ারগন ভালো মানের ট্রেইনিং পায়। আর ঐ ট্রেইনিং হতে প্রাপ্ত শিক্ষা নিজের কর্মক্ষেত্রে প্রয়োগ করে।

৫) পেশাদারি মনোভাব বৃদ্ধি করতে !!

আজকে বর্তমান সময়ে, সবাই যে যার নিজের কর্মক্ষেত্রে প্রোফেশনালদের মত কাজ করতে চায়। আর এই প্রোফেশনালিজম বা পেশাদারি মনোভাব ট্রেইনিং আর এই ট্রেইনিং হতে অর্জন করা শিক্ষার বাস্তব প্রয়োগের উপর নির্ভরশীল।

নিচে কিছু প্রফেশনাল ট্রেইনিং সেন্টারের নাম উল্লেখ করা হলো, যারা কিনা খুবই ভালো মানের ট্রেইনিং প্রদান করে থাকে।

১) BASIS Institute of Technology & Management (BITM)

ওয়েবসাইট: http://www.bitm.org.bd/

২) Bangladesh Skill Development Institute (BSDI)

ওয়েবসাইট: http://pdc.bsdi-bd.org/

৩) Small & Cottage Industries Training Institute (SCITI)

ওয়েবসাইট: https://www.sciti-sme.gov.bd/

৪) GreenLand Training Center

ওয়েবসাইট: https://www.greenlandtrainingltd.com/

Writer information:
Badhon Saha
Primeasia University
Batch: 181

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

Related Post

Related from author