ইন্ডিয়ার ফ্যাশন ব্র্যান্ডগুলোর ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিতে প্রভাব

0
296

বস্ত্র মানুষের মৌলিক অধিকার। আদিম যুগে মানুষ তাদের লজ্জা নিবারনের জন্য বস্ত্র পরিধান করত। ঘাস, গাছের পাতা,লতাপাতা বা পশুর চামড়া দিয়ে সেই বস্ত্র তৈরি করা হত। সময়ের সাথে সাথে পোশাক এর এই ধরন ধারণা বদলেছে। পশুর চমড়া বা লতাপাতার বদলে সুতার মাধ্যমে বস্ত্র তৈরির প্রচলন এসেছে। আর এর সাথে যে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে সেটি হলো ফ্যাশন। ফ্যাশন, পোশাকের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। সময়ের সাথে সাথে ফ্যাশন এর ধরন ও বদলে গিয়েছে। আজ আলোচনা করব ভারতীয় ফ্যাশন ও পোশাকের ঐতিহ্য নিয়ে এবং এটি কিভাবে আমাদের ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিকে প্রভাবিত করছে।

বিশ্বে যত ধরনের পোশাকের বৈচিত্র্যময় ফ্যাশন ট্রেন্ড রয়েছে তার মধ্যে ভারতীয় ফ্যাশন সবচেয়ে বেশি আলোচিত। প্রাচীন কাল থেকে শুরু করে আজ অবদি পুরো বিশ্বে ভারতীয় ফ্যাশনের কদর রয়েছে। ভারত হলো উৎসব ও অনুষ্ঠানে ভরপুর এক ঐতিহ্যবাহী দেশ। এক এক উৎসব অনুষ্ঠানের জন্য ভিন্ন ভিন্ন রকমের পোশাক পড়ার প্রচলন রয়েছে। তাছাড়া ভারতের এক এক প্রদেশে এক এক রকমের ফ্যাশনের চল রয়েছে। সবাই তাদের এই ঐতিহ্য ধরে রেখেছে আবার কিছু ফ্যাশন সময়ের সাথে পরিবর্তন হয়েছে। আর এই ফ্যাশনেবল পোশাক তৈরিতে অবদান রাখছে ভারতের নিজস্ব কিছু পোশাক ব্র্যান্ড। BIBA, LAKSHITA, W এই ব্র্যান্ড গুলো শুধু ভারতে নয় সারা পৃথিবীতেই বিখ্যাত। এদের মাধ্যমে ভারতীয় ফ্যাশন পুরো পৃথিবীর বাজার দখল করে রেখেছে

ফ্যাশন হলো একটি পরিবর্তনশীল ধারা। সময়ের সাথে সাথে এর পরিবর্তন হয়। সেটি পশ্চিম বিশ্বই হোক বা ভারতীয় উপমহাদেশই হোক না কেনো। এখন এই ফ্যাশন পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ব্র্যান্ড গুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ব্র্যান্ড গুলো নতুন ফ্যাশনের পোশাক বাজারে ছেড়ে ফ্যাশন পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে। আর এর জন্য তারা ফ্যাশন শোর আয়োজন করে যার মাধ্যমে তারা মানুষদেরকে সেই নতুন ফ্যাশন সম্পর্কে একটি ধারনা দেওয়ার চেষ্টা করে। ফ্যাশন এর ক্ষেত্রে বিনোদন শিল্পও কাজ করে।

বিনোদনের মাধ্যমে ফ্যাশনকে বিশ্লেষণ বা এর ধারনাকে মানুষের সামনে উপস্থাপন করা হয়। ভারতবর্ষে বলিউডের একটি বিশেষ প্রভাব রয়েছে। যেকোনো বিষয়ে বলিউডের অভিনেতাদের হস্তক্ষেপ বিষয়টিকে ত্বরান্বিত করে। ফ্যাশনের ক্ষেত্রে বলিউডের উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে।৷ সাধারণ মানুষ সর্বদা বলিউডকে অনুকরণ করতে পছন্দ করে। সুতরাং যেকোনো নতুন ফ্যাশন বলিউডের মাধ্যমে সহজে মানুষের কাছে পৌঁছে যায়। মুভিতে নতুন ফ্যাশনের পোশাক দেখানোর মাধ্যমে সেটি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। সারাবিশ্ব জুড়ে ফ্যাশন প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা ফ্যাশন ট্রেন্ডগুলোতে একই প্রভাব ফেলে।

বর্তমানে ইন্টারনেট এবং স্মার্ট ফোনের ব্যবহার বেড়েছে। ভারতীয় মহিলারা এখন ফ্যাশন সম্পর্কে খুবই সচেতন। তারা তাদের চাহিদা এবং পছন্দ সমূহ মোবাইলের মাধ্যমে পেয়ে যাচ্ছে। ফ্যাশন জগতের সকল আপডেট ইন্টারনেট এবং মোবাইলের মাধ্যমে তাদের কাছে পৌছে যাচ্ছে। যার কারনে তারা সময়ের সাথে সাথে ফ্যাশন এর রুচি পরিবর্তন করতে পারছে। বিভিন্ন ফ্যাশন ব্র্যান্ড গুলে তাদের পোশাক উৎপাদন করার সময় এর কোয়ালিটি এবং আরামদায়ক এর বিষয়টির ওপর বিশেষ ভাবে নজর দিচ্ছে। কারন আরামদায়ক না হলে শুধু ফ্যাশন এর জন্য কেউ একটি পোশাক পরিধান করতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করবে না। প্রাচীন যুগে ভারতীয় নারীরা যে ধরনের পোশাক পড়ত তার কিছু কিছু একই রকম থাকলে ও কিছু ফ্যাশনে পরিবর্তন এসেছে।

✒️ Writer information:

Arnob Saha
Primeasia University
Batch: 201
Campus Core Team Member (TES)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here