Monday, June 24, 2024
More
    HomePrintingপ্রিন্টিং এর বেসিক ধারণা

    প্রিন্টিং এর বেসিক ধারণা

      

    টেক্সটাইল প্রিন্টিং এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কাপড়কে এক বা একাধিক  রং এর দ্বারা ডেকোরেটিভ  করে তোলা হয়। প্রিন্টিং কে আরো” Lacalized Dying” বলা হয়  ।  এটি মূলত আর্টস, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ডায়িংয়ের একটা কম্বিনেশন।
    প্রিন্টিং এর সাথে জড়িত কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ঃ


    ডিজাইনঃ 
     ডিজাইন হচ্ছে প্রিন্টিং এর প্রথম এবং গুরুত্বপূর্ণ শর্ত। যখন প্রিন্টিং  এর পরিকল্পনা  করা হবে, তার পুর্বেই  ডিজাইন সিলেক্ট  করে স্ক্রিন বা অন্য কোন বস্তুতে স্থানান্তর  করতে হবে।

    প্রিন্টিংঃ
     ড্রাই অথবা পিগমেন্ট কালারিং বস্তু হিসেবে ব্যবহার করা হয়। 
    পিগমেন্ট  ব্যবহার  করা হয়  সব ধরনের  টেক্সটাইল  বস্তুতে
    আর

    ডাই শুধু ফাইবার দিয়ে তৈরী ফ্যেব্রিক  এ ব্যবহার  করা হয়। 

    ফেব্রিকঃ
     প্রিন্টিং এর জন্য  টেক্সটাইল ফেব্রিক কে প্রস্তুত করতে হবে।প্রিন্টিং  এর জন্য  বিভিন্ন  ধরনের  ফ্যেব্রিক  ব্যবহার করা হয় (ওভেন &নিট)।প্রিন্টিং  এর পূর্বে  ফ্যেব্রিক  কে ভালভাবে ধুয়ে  নেয়া হয় যাতে ফিনিশিং  ক্যেমিকাল ও সাইজিং এজেন্ট  দুর হয়।

    টেকনিকঃ
      যথোপযুক্ত টেকনিক ব্যবহারের মাধ্যমে রং কে ফেব্রিক এর উপরে প্রয়োগ করতে হবে।যেমন ঃরোটারি,ফ্লাট স্ক্রিন,ফ্লাটবেড,ও বর্তমানে  ডিজিটাল  প্রিন্টিং।
      বিভিন্ন ধরনের  প্রিন্টিং  পদ্ধতিঃ
    🔰Block Printing:
    🔰Roller printing 
    🔰Screen printing 
    🔰Heat transfer  printing 
    🔰Ink-Jet Printing. 
    🔰Carpet Printing :
    🔰Warp Printing:
    🔰Resist Printing:
    🔰Photographic Printing:
    🔰Pigment Printing:
    🔰Blotch Printing:
    🔰Discharge Printing:
    🔰Duplex Printing. 


    Writer:

    MD Sajal Hossain. 
    From Sheikh kamal textile Engineering College. 
    🎖Campus Ambassador at TES.  

    RELATED ARTICLES

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -

    Most Popular

    Recent Comments