Home Technical Textile বুনন বস্ত্র নকশায়ন ( Textile designing)

বুনন বস্ত্র নকশায়ন ( Textile designing)

নকশা সমূহের ডিজাইনিং বর্তমানে বিশাল পরিধি বিস্তৃত। বিগত শতাব্দী সমূহে শাসক এবং রাজনৈতিক পরিস্থিতি বা পট পরিবর্তনের সাথে সাথে স্টাইলসমূহ পরিবর্তিত হতো, এবং যেকোনো যুগের সাজসজ্জা সমূহ নির্দিষ্ট রূপে ঐ সময়েই বর্তমানের স্টাইল অনুসরণ করে উদ্ভাবন করা হয়। এই কারণে, আধুনিক বুনন বস্ত্র সমূহকে অবশ্যই অত্যন্ত অভিযোজন বা উপযোজনযোগ্য হতে হবে, কেননা জনসাধারণের পছন্দ খুব বেশি বৈচিত্র্যময় হয় এবং দ্রুত পরিবর্তিত হয়।
বুনন বস্ত্র নকশায়নে পৃষ্ঠের নকশা এবং একটি ফ্যাব্রিকের কাঠামোগত নকশা উভয়ই জড়িত।টেক্সটাইল ডিজাইনিংয়ের জগতটি সুন্দর রঙ, প্রিন্ট এবং নিদর্শনগুলির সাথে অবিশ্বাস্য। তবে স্ট্রাইকিং ডিজাইন তৈরির কাজটি একটি জটিল এবং আরও বেশি দাবিদার প্রক্রিয়া। টেক্সটাইল তৈরির বিভিন্ন দিক, বাজারের চাহিদা এবং বর্তমানের প্রবণতাগুলির গভীর জ্ঞান প্রয়োজনীয়। টেক্সটাইল ডিজাইনিংয়ের জন্য তিনটি দক্ষতা মূলত প্রয়োজনীয়; সৃজনশীল ডিজাইনিং, রঙের সঠিক মিশ্রণ নিয়ে কাজ করা এবং পুনরাবৃত্তি করা। এটি উভয়ই চ্যালেঞ্জিং পাশাপাশি লাভজনকও।
টেক্সটাইল ডিজাইনিংয়ের প্রক্রিয়া একটি সহজ ধারণা হিসাবে কাগজে শুরু হয়, তার যাত্রা অব্যাহত রাখে এবং একটি মুদ্রিত কাপড়ে তার চক্রটি সম্পূর্ণ করে। এটি স্ট্রাইপ, পুষ্পশোভিত, জ্যামিতিক, চেকস, পাইসলে, গ্রীষ্মমন্ডলীয় এবং আরও অনেক স্টাইল অন্তর্ভুক্ত। এর বিস্তারিত নিচে আলোচনা করা হলো –

ডিজাইনিং এর ক্ষেত্রে , ডিজাইনের উদ্দেশ্যটি সর্বপ্রথম বিবেচনা করতে হবে ।
সিল্ক ছাপার ডিজাইন সমূহকে সাধারণত নিমােক্ত শ্ৰেণী সমূহে বিভক্ত করা যায়ঃ

১. খেলাধুলা সম্পৃক্ত দল ( Sports group ) : সক্রিয় ও দর্শক এক্ষেত্রে , ডিজাইন সমূহ সাধারণত বৃহৎ আকৃতির , উজ্জ্বল এবং রঙিন হয়ে থাকে এবং এদেরকে মুক্তভাবে , রঙ ছিটানাে ( Splashy ) পদ্ধতিতে অঙ্কন বা তেরী করা হয় । এক্ষেত্রে , ডােরাদাগ , প্লেইডস ( Plaids ) ফ্লোরালস ( florals পুস্পসংক্রান্ত ) । এবং জ্যামিতিক আকৃতিসমূহ ব্যবহার করা হয় , এবং ব্যবহৃত বস্ত্র ও কাপড়টি অনেক সময় অমসৃণ এবং ক্রেইপী প্রকৃতির হয়ে থাকে ।

২. বাহিরের ও দিনের সময়কার দল ( Street & day time group ):
এক্ষেত্রে , নকশাসমুহ অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্রাকৃতির হয়ে থাকে । এদেরকে কাছাকাছি , স্বল্প পরিসরে স্থাপন করা হয় এবং নকশা হিসেবে অধিকাংস ক্ষেত্রে ফ্লোরাল বা জ্যামিতিক আকৃতি হয়ে থাকে । এই পর্যায়ে , মনােরম রঙের ব্যবহার করা হয় এবং ডিজাইন সমূহ পটভুমির রঙের মাঝে হারিয়ে যায় বা মিশে যায় । ব্যবহৃত বস্ত্ৰসমূহ সাধারণত মসৃণ পৃষ্ঠের হয়ে থাকে ।

৩. বৈকালিক দল ( After noon Group ) : আনুষ্ঠানিক এবং অনআনুষ্ঠানিক । ইহা বাহিরের পােশাকের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত ডিজাইনসমূহ হতে অপেক্ষকৃত বড় হয়ে থাকে এবং সাধারণত শিফন এবং ক্রেইপীর উপর ব্যবহার করা হয় । এক্ষত্রে , মনােরম , আবছা রূপ সর্বোত্তম ।

৪. সান্ধ্যকালীন এবং আনুষ্ঠানিক দল ( Evening & formal group ) :
এই শ্রেণীর ক্ষেত্রে ডিজাইন বৈচিত্র্যময় হয়ে থাকে । নকশা সমূহ অস্পষ্ট রেখাযুক্ত ,হতে পারে বা গাঢ় জমিনের উপর উজ্জল রঙে ক্ষুদ্রাকৃতির হতে পারে । এক্ষেত্রে , ফিল , ভেলভেট, ক্রেইলী , ট্যাফেটা এবং ফেইলী ব্যবহৃত হয় ।

৫. নতুনত্ব সমূহ ( Novelties ) :
ইহাদের শিশুদের জন্যে ছাপা পােশাক , মহিলাদের অন্তর্বাসের ( Lingerie ) ইত্যাদিতে ব্যবহার করা হয় । ক্ষেত্রে খড়ি বর্গের ( pastcl ) জামিনের উপর রুচিপূর্ণ রঙের ক্ষুদ্রাকৃতির নকশাসমুহ বেশ জনপ্রিয় । ত্র সমূহের বয়নবিন্যাস সাধারণত মসৃণ হয়ে থাকে । শিশুদের ছাপ সমুহ উজ্জল বর্ণের হয়ে থাকে । অভিনব ছাপসমূহ বাহিরের ও খেলাধুলার পোশাকেও ব্যবহার করা হয়ে থাকে ।

৬. গলায় বাধার রুমাল বিশেষ (Cravats ) :
খেলাধুলা পােশাক ব্যাতীত ইহার নকশাসমুহ রক্ষণশীল বর্ণের হয়ে থাকে ।
এই “ মদ্রিত ” ( Typcd ) ডিজাইন সমুহ সাধারণ স্টাইলের প্রচলনের উপর নির্ভর করে শ্রেণীবিভাগ করা হয় , তবে এক্ষেত্রে সবসময় নিয়মে ব্যাতিক্রম ঘটে এবং কোন কোন ঋতু বা সময়ে প্রচলিত রীতি এত বেশী পরিবর্তিত হয় যে ডিজাইনারগণ এর পক্ষে নিয়ম মেনে চলা সম্ভব হয় না । এক্ষেত্রে , ফ্যাশন ম্যাগাজিন এবং সামিয়ীকসমূহ ডিজাইনার এর বেশ সাহায্যে আসে এবং সবসময়ই এই ম্যাগাজিন পড়ে দেখা উচিত ।

সুতি ( Cotton ) :
১. খেলাধুলার পোশাক ( Sports wear ):উজ্জল বর্ণের বৃহৎ আকৃতির নকশা ।
২. অর্ন্তবাস ( Lingerie ) : ক্ষুদ্রাকৃতির নকশা ।
৩. ঘরের পোশাক এবং শিশুদের পােশাকঃ উজ্জল বর্ণের ক্ষুদ্রাকৃতির নকশা ।
৪. বাহিরের পােশাক ( Street wear ):সিল্ক এবং উলের সদৃশ্য ।
৫. বৈকালিক এবং সান্ধ্যকালীণ পােশাকঃ মনােরম বর্ণের বৃহৎ এবং ক্ষুদ্রাকৃতির নকশা ।

লিনেন ( Linen ):
খেলাধুলার পোশাক , বাহিরের এবং সাধারণ পােশাকের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয় । নকশা সমূহ ছোট এবং পটভূমি উত্তমরূপে আবৃত থাকে ।

উলেন (Woolen ) :
ক্যালিস ( Challis ) ও উলের ক্রেইপীর ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয় । সাধারণত ছােট জ্যামিতিক আবৃতি এরং ফ্লোরাল ব্যবহৃত হয়ে থাকে । মােড়ানাের কাগজের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয় । উজ্জল বর্ণের ছােট বড় সকশা ব্যবহত করা হয় ।

খামের প্রান্তরেখা ( Envelope Linings ):
দলবদ্ধ ক্ষুদ্রাকৃতির নকশা ব্যবহার করা হয় ।

রুমাল ও গলার স্কার্ফ ( Scurf & Handker chiefs ):
চার কোণায় একই নকশা থাকলে নকশা বা ডিজাইনটির এক চতুর্থাংশ প্রদর্শন করা হয় । চতুরাকার স্কার্ফ বা গলার রুমাল সমূহ সাধারণত উনচল্লিশ বর্গ ইঞ্চির হয়ে থাকে । এদেরকে ঋতুর সাথে মিলিয়ে বা মানানসই করে রঙিন করা হয় । রুমাল সমূহের সাধারণ আকৃতি হচ্ছে তের বর্গ ইঞ্চি । সীমা রেখা পরিকল্পনা করা হলে , আকার পনের ইঞ্চি হবে । এর সাজসজ্জা সাধারণত এক বা দুই রঙের হয়ে থাকে , তবে বর্তমানের অনেক রুমাল এর নকশা ডিজাইন সমূহে তিন বা চার রঙ ব্যবহার করা হয়ে থাকে ।

ওয়েল ক্লথ ( Oil cloth ): এক্ষেত্রে , জ্যামিতিক আকৃতি এবং ফ্লোরাল ব্যবহার করা হয় ।

জাজিম এবং গালিচা ( Rugs & Carpets ) :
এদেরকে সাধারণত ছােট ছােট একক বা পরিমাপে ডিজাইন করা হয় এবং এতে সকল ধর্মী সজ্জা অন্তর্ভুক্ত করা হয় ।

‌সাফল্য অর্জনের জন্য আকর্ষণ করবার এবং তা ধরে রাখবার জন্যে ছাপ সমূহে অবশ্যই প্রফুল্ল অনুভূতি বিদ্যমান থাকতে হবে, এদেরকে অবশ্য ভিন্নধর্মী হতে হবে এবং নিত্য নতুন বৈশিষ্ট্য প্রদর্শন করতে হবে। কোনো বুনন বস্ত্রের ডিজাইন শৈল্পিকভাবে পরিকল্পনা করে এবং সতর্কভাবে তৈরি করা হলেও একে অবশ্য ফ্যাশনের দৃষ্টিকোণ হতে সঠিক হতে হবে। ডিজাইনারকে অবশ্যই যে বস্ত্রের উপর ডিজাইন ছাপা হবে তার কথা বিবেচনা করতে হবে,এছাড়াও তাকে বস্ত্রটি তৈরি হওয়ার পর কি কাজে ব্যবহৃত হবে সে কথাও চিন্তা করতে হবে।

Khadijatul jannat Promy
Bangladesh home economics college
22th batch of clothing and textile department, 3rd year

Tahmina Akter Mina
Bangladesh home economics college
22th batch of clothing and textile department, 3rd year

Source : Fashion drawing
Hazel R. Doten and
Constance Boulard.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Post

Most Popular

Related Post

Related from author