Thursday, June 13, 2024
More
    HomeTechnical TextileUNIVERSITY OF MISSOURI এর তৈরি নতুন পরিধানযোগ্য শীততাপ নিয়ন্ত্রণ ডিভাইস

    UNIVERSITY OF MISSOURI এর তৈরি নতুন পরিধানযোগ্য শীততাপ নিয়ন্ত্রণ ডিভাইস

    মিসৌরি ইউনিভার্সিটির প্রকৌশলীরা এমন একটি অন স্কিন ডিভাইস তৈরী করেছেন যাতে বিদ্যুৎ ছাড়াই মানুষের শীততাপ নিয়ন্ত্রণের ব্যাবস্থা থাকছে। এটাকে বলা হচ্ছে “পরিধানযোগ্য শীততাপ নিয়ন্ত্রণ ডিভাইস। এই যন্ত্রে মানুষের বেশ কয়েকটি স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা রয়েছে। যেমন – রক্তচাপ, হ্রদযন্ত্রের সঞ্চালন কার্যক্রম এবং ত্বকের শুষ্কতা পরিমাপ।

    ন্যাশনাল একাডেমি অফ সাইন্স এর সাময়িকীতে বিস্তারিত ভাবে পাওয়া যাবে।আজকাল এই ধরনের পন্যে যেসব সুবিধা পাওয়া যায়, এই যন্ত্রের কার্যক্রম তা থেকে পুরোপুরি ভিন্ন। এই যন্ত্র পরিধান করে স্বাভাবিক শ্বাস প্রশ্বাসে কোনো সমস্যা হয় না এবং এই যন্ত্রে পানি প্রবেশ করতে পারে না।

    এই যন্ত্রে প্যাসিভ কুলিং (পরোক্ষ শীতলীকরণ) প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মানবদেহের শীততাপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা রয়েছে। প্যাসিভ কুলিং (পরোক্ষ শীতলীকরণ) প্রক্রিয়ায় এই যন্ত্রে কোনো ফ্যান বা পাম্পের মাধ্যমে বিদ্যুৎ ব্যবহারের কোনো প্রয়োজন হয় না। এর ফলে এই যন্ত্র ব্যবহারকারীদের অস্বস্তির মাত্রা নূন্যতম পর্যায়ে রাখা সম্ভব বলে গবেষকেরা মনে করেন।

    কলেজ অফ ইন্জিনিয়ারিং এর সহকারী অধ্যাপক গবেষণার রচয়িতা জেন ইয়াং বলেন, আমাদের এই যন্ত্র মানবদেহকে সূর্যের আলোর প্রতিফলন থেকে দূরে রাখে। যাতে দেহে তাপ শোষণ নূন্যতম পর্যায়ে হয়।একইসঙ্গে এই যন্ত্র মানবদেহ থেকে তাপ নিঃসরণে সহায়তা করে। যাতে দিনের বেলা মানবদেহ প্রায় ১১ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত শীতল হয়।

    আমরা মনে করি এটা হচ্ছে অন স্কিন ইলেকট্রনিকসের উদীয়মান এই ক্ষেত্র এই যন্ত্রের কার্যক্ষমতার প্রথম প্রমাণ। বর্তমানে যন্ত্রটি ক্ষুদ্রাকৃতির তারযুক্ত আস্তরণ। গবেষকরা বলছেন এক থেকে দুই বছরের মধ্যেই এই যন্ত্রের তারবিহীন সংস্করণ উদ্ভাবন সম্ভব হবে। তারা আরো আশা করন যে তাদের এই প্রযুক্তি প্রয়োগ করে স্মার্ট টেক্সটাইল তৈরী করা যাবে।

    ইয়ান বলেন, পরিশেষে আমরা, এই প্রযুক্তি ব্যাবহার করে স্মার্ট টেক্সটাইল উদ্ভাবন করতে চাই। এই যন্ত্রের শীতলীকরণ ক্ষ্মমতা সমগ্র দেহ ব্যাপী পরিব্যপ্ত হবে। এখন পর্যন্ত এই যন্ত্রের শীতলীকরণ ব্যবস্থা একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, যেখানে তারযুক্ত ঐই আস্তরনটির অবস্থান।

    আমরা বিশ্বাস করি, এটি ভবিষ্যতে বিদ্যুৎ ব্যাবহার উল্লেখযোগ্য পরিমাণে হ্রাস পাবে এবং এটা বৈশ্বিক উষ্ণায়নে সহায়ক হবে। এই গবেষণার জন্য তহবিলের যোগান হয়েছে, মিসৌরি ইউনিভার্সিটি স্টার্ট আপ তহবিল এবং এয়ার ফোর্স অফিস অফ সাইন্স রিসার্চের অনুদান থেকে।

    ✒️ Writer information:

    Akbar Hyder Khan
    Primeasia University
    Batch: 182
    Campus Core Team Member (TES)

    RELATED ARTICLES

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    - Advertisment -

    Most Popular

    Recent Comments