Select Page

স্পিনিং সিরিজ: Blow Room Part -2

স্পিনিং সিরিজ: Blow Room Part -2

ফয়সাল আহমেদ, ৬ষ্ঠ ব্যাচ, নিটার:

 

ব্লো-রুম

 (২য় পর্ব)

ব্লোরুমে প্রধানত ধরনের মেশিন থাকে। যেমনঃ

১। ব্লেন্ডিং ও মিক্সিং মেশিনারি।

২। ওপেনিং ও ক্লিনিং মেশিনারি।

৩। সহায়ক যন্ত্রপাতিসমূহ।

মেজর ক্লিনিং পয়েন্টঃ

ব্লো-রুম সেকশনে ব্ল-রুমে ব্যবহারকারী বিভিন্ন পয়েন্টসমূহের মধ্যে যেসব মেশিনারি অধিক ট্রাশযুক্ত ময়লা আঁশসমূহকে ওপেনিং ও তুলনামূলক অধিক ক্লিনিং করে আঁশসমূহ পরিস্কার করে থাকে ,তাকে মেজর ক্লিনিং পয়েন্ট বলে। তুলনামূলক বিচারে মেজর ক্লিনিং পয়েন্ট মাইনর ক্লিনিং পয়েন্টগুলোর চেয়ে অধিকমাত্রায় আঁশ ওপেনিং ও ক্লিনিং করে থাকে।

ব্লো-রুমের ৫ টি মেজর ক্লিনিং পয়েন্টের নাম হলোঃ

১। ক্রাইটন ওপেনার ।

২। পারকিউপাইন ওপেনার।

৩। টু অথবা থ্রী প্লেটেড বিটার।

৪। ক্রিশনার বিটার ।

৫। স্টেপ ক্লিনার।

ব্লো-রুমের ৩ টি মাইনর ক্লিনিং পয়েন্টের নাম হলোঃ

১। হপার ফিডার।

২। কন্ডেন্সার।

৩। নিউমেটিক ডেলিভারি বক্স।

ব্লো-রুমের ল্যাপ ফর্মিং ইউনিটে টি বিটিং এবং ১টি ক্লিনিং মেশিনারি ও কন্ডেন্সার ইউনিটসহ ল্যাপ ফর্মিং ইউনিটসহ ল্যাপ ফর্মিং ইউনিট থাকে।

বিভিন্ন গ্রডের তুলার জন্য যতগুলো বিটিং পয়েন্ট ব্যবহার করা হয়ঃ

উচ্চমানের তুলার জন্য বিটিং পয়েন্টের সংখ্যা টি , মধ্যম গ্রডের তুলার জন্য বিটিং সংখ্যা ৫টি, ও নিন্মমানের তুলার জন্য বিটিং পয়েন্টের সংখ্যা ৭টি ব্যবহার করা হয়।

বিভিন্ন এয়ার কারেন্ট ডিভাইসের নাম হলোঃ

১। ফ্যান, ২। এয়ার কারেন্ট, ৩। এক্সজস্ট ওপেনার।

ডিস্ট্রিবিউশন ডিভাইসের নাম হলোঃ

১। ডেলিভারি বক্স, ২। টু-ওয়ে-ডিস্ট্রিবিউটর

কটন কনভেয়িং ডিভাইসের নাম হলোঃ

১। কনভেয়র বেল্ট, ২। কনভেয়িং পাইপ

ব্লেন্ডিং ও মিক্সিং মেশিনারির তালিকা হলোঃ

১। হপার বেল ব্রেকার

২। বেল ব্রেকার

৩। পেডাল বেল ব্রেকার

৪। পারকিউপাইন বেল ব্রেকার

৫। হপার ফিডার

৬। ব্লেন্ডার

৭। মিক্সিং বেল ওপেনার

৮। মাল্টি বেল ওপেনার

৯। অটোমেটিক বেল ওপেনার

১০। বেল প্লাকার

হপার বেল ব্রেকার এর কাজ ও উদ্দেশ্যঃ

এই মেশিনের সাহায্যে দৃঢ় ও শক্তভাবে স্তরে স্তরে চাপানো আঁশসমূহকে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র গুচ্ছে খোলা হয় এবং ধুলাবালি ও অন্যান্য অপদ্রব্যদমূহকে আঁশ হতে আলাদা করা হয়।

পারকিউপাইন ওপেনারঃ

বিটিং-এর প্রকারঃ অনুভূমিক রোলারের উপর বাকানো ব্লেড। পারকিউপাইন ওপেনারের আধুনিক সংস্করণও রয়েছে।

ফিডিং-এর ব্যবস্থাঃ ফিড প্লেট ও রোলারের মাধ্যমে আঁশ ফিড হয়। ফিড রোলার ও পেডাল আঁশকে ধরে রাখে এবং বিটারের স্ট্রাইকার গুলো তুলাকে আঘাত করে।

আঁশের ওপর ক্রিয়া ও অবস্থাঃ মোটামুটি ভাল ক্লিনার প্রায় সব ধরনের আঁশের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়।

ব্লো-রুম লাইনের অবস্থানঃ মাঝামাঝি থেকে শেষ অবস্থানে।

রেগুলেটিং মেশিনের ক্রিয়াগুলো হলোঃ

সুইং প্যাডেল, সুইং ডোর, প্যাডেল লিভার, পিয়ানো ফিড রেগুলেটর ।

ওপেনিং মেশিনারিঃ

যেসব মেশিনের সাহায্যে বেল থেকে প্রাপ্ত তুলার অংশের গুচ্ছসমূহকে বিটার অথবা অন্যকোনো সাহায্য নিয়ে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশের গুচ্ছে রূপান্তরিত করে সেসব মেশিনারীকে ওপেনিং মেশিনারী বলে।

পাঁচটি ওপেনিং মেশিনের নাম হলোঃ

১। বেল ব্রেকার

২। মিক্সিং বেল ওপেনার

৩। মাল্টি বেল ওপেনার

৪। অটোমেটিক বেল ওপেনার

৫। বেল প্লাকার

ওপেনিং মেশিনে যেসব কাজ হয়ঃ

১। ওপেনিং

২। বিটিং

৩। স্ট্রিপিং

৪। আঁশ স্থানান্তর

ব্লেন্ডার মেশিনের উৎপাদন ঘন্টায় ৬০০ কেজি।

ওপেনিং করার পর আঁশের গুচ্ছের আকার .১ মি. গ্রাম থেকে ২.৩ মি. গ্রাম হয়ে থাকে।

About The Author

Morshed Shikder

I am The Managing Editor of "Textileengineers.Org" Feel free to contact with us. Web : www.smmorshed.website

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




Grow up your business

TextileEnginerrs










April 2020
MTWTFSS
« Mar  
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930