Textile Luster & Cultural Event 1.0 Successfully done by TES-Port City International University Team

0
208

“God makes us Human, & We make them Gentleman”.

পোশাক হচ্ছে মানুষের ব্যক্তি সত্ত্বার বহিঃপ্রকাশ।
প্রত্যেকটি পোশাক তৈরির পেছনে থাকে হরেক রকমের গল্প। কখনো থাকে সুতোর খেলা, তো কখনো রঙের মেলা। সাথে ক্যামিকেলের রাজত্ব‌ও থাকে। তবে সবকিছুর প্রথমে থাকে Shuttle loom, Knitting, Weaving এর মতো ইয়া বড় বড় মেশিনের যুদ্ধ। যার মূলে থাকে হাজার মানুষের ঘাম ঝরানো নির্ঘুম পরিশ্রম। হাজার মানুষের যুদ্ধ।
যুদ্ধের ফলাফল প্রকাশ পাওয়া মাত্রই তাদের মুখে ফুটে বিশ্বজয়ের হাসি।

আর এই ফলাফল হলো একটি কাপড়। সবকিছুর বিনিময়ে তৈরি হয় একটি কাপড়। যা আমরা পরিধান করি।

আর এই সবকিছুই টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং এর অংশ।

আমাদের টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং সোসাইটি টিম পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি
টি.ই.এস. টিম পি.সি.আই.ইউ. সবসময় যারা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করছেন, তাদের সকলের জন্য নিজেদের সর্বোচ্চটা সকলের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে বিভিন্ন সেমিনার/সুষ্ষ্ঠ প্রতিযোগিতার আয়োজন করার মাধ্যমে।

এর আগেও অনলাইন ইভেন্ট, “Innovative Mind Sweeper 2021” এবং ৪ দিন ব্যাপী একটি অনলাইন কোর্স, “Basic Course on Merchandizing Course” আয়োজন করেছিল।

গত ১৯শে নভেম্বর রোজ শুক্রবার, জিইসি প্যালেসে, টি.ই.এস. (টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং সোসাইটি) টিম পি.সি.আই.ইউ দ্বারা আয়োজিত অফলাইন মেগা ইভেন্ট, “Textile Luster & Cultural Event 1.0” অনুষ্ঠিত হয়।

এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,

• “জনাব ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ শাহজাহান” স্যার, যিনি বর্তমানে, “Reliance Dresses Ltd” এর ‘Project Head’ এবং ” Dezzle Breeze” এর ‘CEO’ হিসেবে কর্মরত আছেন।

• জনাব “ইঞ্জিনিয়ার শুভাশীষ বড়ুয়া” স্যার, যিনি বর্তমানে টেক্সটাইল টেস্টিং ল্যাবরেটরি, এপিক গ্রুপের, ‘ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার’ হিসেবে কর্মরত আছেন।

• জনাব “মোহাম্মদ নাফিদুল ইসলাম” স্যার, যিনি বর্তমানে “Four H Group” এ “Four H Dyeing & Printing Ltd” এ ‘Head of Store’ হিসেবে নিযুক্ত আছেন।

• জনাব “ইঞ্জিনিয়ার মিনহাজুল আবেদীন” স্যার, যিনি বর্তমানে ” Reliance Dresses Ltd” এর মার্চেন্ডাইজার এবং “Dezzle Breeze” এর ‘Brand Manager’ হিসেবে কর্মরত আছেন।

• জনাবা “ক্যামেলিয়া টিনকো” ম্যাম, ও মারিয়ানা জলিডন রোমানিয়ার বায়ার।

ইভেন্টটিতে শ্রদ্ধেয় স্যার এবং ম্যামরা নিজেদের কিছু বক্তব্য, নিজেদের কিছু অভিজ্ঞতা, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে কিছু কথা, কিছু পরামর্শ প্রদান করেন; যা আমাদের প্রচুর অনুপ্রাণিত করে। বিশেষ করে মোহাম্মদ শাহজাহান স্যারের উক্তি, Don’t open your ‘Mutthi’ for next 20 years. After 20 years you will find yourself on a high place. You have to run. Just run. Don’t walk”.

উক্ত ইভেন্টটি আয়োজন করার পেছনে যাদের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে, তারা হলেন;
আসাদুল্লাহ্ রাব্বুল,নওশীন সাদিয়া,মোকাররম রহমান সেওয়াজ, সৈকত দে, কাউসার নাহিন,তাওসীফ,রিয়াজ আহমেদ, আবদুল্লাহ্ আল হোসেন নয়ন, সাইফুল্লাহ্ মোহাম্মদ আইদিদ, মাইমুনা আলম আনিকা,উৎপলবর্ণা বড়ুয়া তূর্ণা, আফিয়া সামা বৃন্তা, হিমাদ্রি চক্রবর্তী,আতিকুর রহমান।

ইভেন্ট কনভেনর হিসেবে ছিলেন,এস.এম. আসাদুল্লাহ্ রাব্বুল। এবং কো-কনভেনর হিসেবে ছিলেন, নওশীন সাদিয়া, মোকাররম রহমান সেওয়াজ,সৈকত দে ।

তাছাড়া রয়েছে,

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট টিম, পোস্টার মেকিং টিম, কন্টেন রাইটিং টিম, অর্থ সম্পাদনা টিম, কালচার টিম, স্পন্সর কালেকশন টিম, সোশ্যাল মিডিয়া টিম, স্টেজ ডেকোরেশন টিম, অতিথি আপ্যায়ন টিম, হোস্টিং টিম, ফুড টিম, ভলোন্টিয়ার টিম এদের‌ও অবদান রয়েছে।

ইভেন্টটিতে হোস্টের ভূমিকা পালন করেছেন,
আবদুল্লাহ আল হোসেন নয়ন, ফাইরোজ মালিহা,রিয়াজ আহমেদ এবং মাইমুনা আলম আনিকা।

অনুষ্ঠানের শেষে টিম পি.সি.আই.ইউ’র সদস্যদের আয়োজনে পরিবেশিত হয় কালচারাল প্রোগ্রাম ।
অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করা শিক্ষার্থীরা জানায় – এই ধরণের সেমিনার তাদের সাথে ইন্ডাস্ট্রির অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের সুসম্পর্ক তৈরি করবে এবং উনাদের কথাগুলো ভবিষ্যতে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যেতে পারবে

শতাব্দী রাণী সরকার
২য় বর্ষ, পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here